অভ্যুত্থানবিরোধী মন্তব্য করার জন্য রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে মিয়ানমার

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে ও ক্ষমতাচ্যুত নেতা অং সান সু চির মুক্তি দাবিতে মন্তব্য করায় যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে মিয়ানমার। বুধবার (১০ মার্চ) এ তথ্য জানা যায়।

রাষ্ট্রদূত কিয়াও জর মিন এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, তার দেশ ইতোমধ্যে ‘বিভক্ত’ হয়ে পড়েছে ও যে কোনো সময় গৃহযুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের নির্বাচিত সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। গৃহবন্দি করা হয়েছে এনএলডি নেতা অং সান সু চি এবং প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টকে। এই ঘটনায় গত মাস হতেই দেশটিতে অভ্যুত্থান বিরোধী বিক্ষোভ চলছে। সেনাবাহিনীর সাবেক কর্নেল ও রাষ্ট্রদূত কিয়াও জর মিন গত সোমবার একটি বিবৃতিতে অং সান সু চি এবং ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের মুক্তি দাবি করেছিলেন। এ বিবৃতির জন্য মিনকে ‘সাহসী এবং দেশপ্রেমিক’ বলে প্রশংসা করেছিলেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব।

এক সাক্ষাৎকারে রাষ্ট্রদূত কিয়াও বলেছেন, ‘আমি মিয়ানমারের নাগরিকদের মরতে দেখতে চাই না। আমি সবাইকে (বিক্ষোভকারী এবং সেনাবাহিনী) বন্ধ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। দেশ ইতোমধ্যে অনেক বেশি বিভক্ত ও গৃহযুদ্ধের ঝুঁকিতে আছে, আমি শান্তি চাই।’

(ঊষার আলো-এফএসপি)