আসামির স্ত্রী পেটাল পুলিশকে

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : নওগাঁর মান্দায় আসামির স্ত্রী পেটাল পুলিশকে। আসামি ধরতে গিয়ে আসামির স্ত্রীর হামলার শিকার হয়েছেন জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সদস্য। হামলা চালিয়ে আটককৃত মাদক কারবারি খলিলুর রহমানকে (৪৮) ছিনিয়ে গেছে তার লোকজন। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

হামলায় গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টেবল আনোয়ার হোসেন (৩০) আহত হয়েছেন। তাকে উদ্ধার করে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার (১১ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের বড়বেলালদহ (নাপিতপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মাদক কারবারি খলিলুর রহমান ওই গ্রামের মৃত আবদুল মণ্ডলের ছেলে। হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাদক কারবারি খলিলুর রহমানের স্ত্রী পারুল বেগম (৪৫) ও প্রতিবেশী মৃত মসলেম উদ্দিন মোল্লার ছেলে লাদু মোল্লাকে (৫০) আটক করা হয়েছে।

নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মহসীন আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক কারবারি খলিলুর রহমানের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ২০ গ্রাম হেরোইনসহ খলিলকে আটক করে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে দেন কনস্টেবল আনোয়ার হোসেন। এ সময় খলিলুর রহমানের স্ত্রী পারুল বেগম লোহার একটি রড দিয়ে কনস্টেবল আনোয়ার হোসেনকে বেধড়ক পেটাতে থাকেন।

তিনি আরও বলেন, ঘটনায় হইচই পড়ে গেলে খলিলুর রহমানের প্রতিবেশী লাদু মোল্লা একটি হাতুড়ি নিয়ে বাড়ির ভেতরে এসে কনস্টেবল আনোয়ার হোসেনকে মারপিট করে মাদক কারবারিকে ছিনিয়ে নেন। পরে আহত কনস্টেবলকে উদ্ধার করে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি এসএস পাইপ, একটি হাতুড়ি ও একটি লাঠি।

মান্দা থানার ওসি শাহিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ইন্সপেক্টর ইনচার্জ কেএম শামসুদ্দিন জানান, হামলার ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। পলাতক খলিলুর রহমানকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)