ইসরাইলে একদিনে করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : করোনা টিকার দুই ডোজের পরও অতিরিক্ত আরেক ডোজ অর্থাৎ বুস্টার ডোজ নেওয়ার পরও ইসরাইলে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের রেকর্ডসংখ্যক সংক্রমণ হয়েছে।

ইহুদিবাদী এ দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ প্রায় ১১ হাজার নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নেওয়া টিকাদানের শীর্ষে থাকা এ দেশটিতেও করোনার অতিসংক্রামক ডেল্টা ধরনের প্রকোপ দেখা দিয়েছে।

তার আগে ইসরাইলে একদিনে সর্বোচ্চ দশ হাজার ১১৮ জনের করোনা শনাক্ত হয় গত ১৮ জানুয়ারি। আর মঙ্গলবার ইসরাইলে নতুন করে ১০ হাজার ৯৪৭ জনের করোনা শনাক্ত হলেও দেশটির সরকার স্কুল খুলে দেওয়ার ব্যাপারে অনড়।

প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট তার পূর্বসূরি বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর দিনের পর দিন লকডাউন আরোপের বিষয়ে বিরোধী ছিলেন। তার দাবি টিকার মাধ্যমে ও মাস্ক পরা এবং শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার মতো স্বাস্থ্যবিধির মাধ্যমে ভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

ইসরাইলের সরকার ১২ বছরের বেশি বয়সি সকলকে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার তৃতীয় তথা বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে।  তার মধ্যে প্রায় ২০ লাখের বেশি ইসরাইলিকে এ পর্যন্ত বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

দেশটির ৯৩ লাখ মানুষের ৬০ শতাংশ টিকার দুই ডোজই নিয়েছেন, এর মধ্যে ৮০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক আছেন।

গত বছরের ডিসেম্বরে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ইসরাইলে কোভিড টিকাদান কর্মসূচি শুরু করে। তার মধ্য দিয়ে দেশটিতে দৈনিক শনাক্ত অনেকটা কমে গিয়েছিল। এরপর গত জুনে প্রায় সকল ধরনের মহামারি বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

(ঊষার আলো-এফএসপি)