UsharAlo logo
বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা নগর ও জেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত 

ঊষার আলো ডেস্ক
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৪ ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

 শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি ) দুপুর ২ টায় নগরীর ময়লাপোতা মোড়ে হোটেল আজমিরীর কনফারেন্স হলে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশে খুলনা মহানগর এর সভাপতি মুহাম্মাদ মঈন উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও জেলা সাধারণ সম্পাদক মুহা. নাঈমুল ইসলাম ও নগর সাধারণ সম্পাদক মাহাদী হাসান মুন্নার যৌথ সঞ্চালনায় ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশে খুলনা মহানগর ও জেলার “নগর ও জেলা সম্মেলন ২০২৪” অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় দাওয়াহ ও দফতর সম্পাদক গাজী মুহাম্মাদ আলী হায়দার বলেন, “শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড, শিক্ষাই মূল, শিক্ষার মাধ্যমেই পরিবর্তন করা সম্ভব। শিক্ষার মাধ্যমেই নৈতিকতা ও সংস্কৃতির পরিচয় বহন করে। শিক্ষা ও সাংস্কৃতির মাধ্যমেই একটি জাতির পরিচয় পাওয়া যায়। এ জন্য কোনো জাতিকে ধ্বংস করতে চাইলে তার শিক্ষাব্যবস্থা ও সাংস্কৃতিকে ধ্বংস করতে হয়। এ জন্য বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থার ওপর শকুনের দৃষ্টি পড়েছে। আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার দিকে তাকালে বুঝাই যাবে না, এটা ৯২ ভাগ মুসলমানের শিক্ষা কারিকুলাম। শিক্ষাকে ভিনদেশি ধাঁচে সাজানো হয়েছে, ইসলামশূন্য করার টার্গেট নিয়ে। এর মাধ্যমে মেধাসম্পন্ন জাতি এবং বিজ্ঞানী গড়ে ওঠার কোনো সুযোগ নেই, নেই আদর্শ জাতি গঠনের কারিকুলাম!
তিনি বলেন, ইসলামী শিক্ষার মূল ভিত্তি হলো ওহি। শিক্ষা ছাড়া কোনো জাতি উন্নতি অগ্রগতি করতে পারে না। শিক্ষা ছাড়া নিজ পরিচয় তুলে ধরা যায় না। কিন্তু এখন শিক্ষার নামে কী হচ্ছে? মুসলমানরা ভারত উপমহাদেশ সাড়ে সাতশত থেকে আটশত বছর শাসন করেছে। কিন্তু কোনো অন্যায়ভাবে আক্রমণ করেনি। ইসলাম গ্রহণেও বাধ্য করেনি। কিন্তু মুসলমান শাসকগণ যদি চাইতেন তাহলে ভারতবর্ষে কোন মন্দির কিংবা হিন্দু থাকত না।
তিনি আরো বলেন, ৯২ ভাগ মুসলমানের দেশে শিক্ষা ও সাংস্কৃতি হবে ইসলামের আলোকে। অথচ আমরা কী দেখছি! মাদ্রাসার বই’য়ে হারমোনিয়াম-তবলা এবং হাফপ্যান্ট পড়া মেয়েদের ছবি। বই থেকে ইসলামের ইতিহাস তুলে দেওয়া হয়েছে। ড. শহিদুল্লাহ, চার খলিফা ও সাহাবাদের জীবনী তুলে দেওয়া হয়েছে। এভাবেই ভিনদেশি শিক্ষা ও সংস্কৃতি চাপিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে।
সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা নগর সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুফতী আমানুল্লাহ, সহ-সভাপতি শেখ মুহাম্মাদ নাসির উদ্দিন, জেলা সহ-সভাপতি মাও: শায়খুল ইসলাম বিন হাসান, শেখ মুহা: জামিল হোসেন, নগর সেক্রেটারি মুফতি ইমরান হুসাইন, জেলা সেক্রেটারী হাফেজ আসাদুল্লাহ আল গালীব, জেলা ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক মাও: ডা: আব্দুল্লাহ আল মামুন, মোঃ রেজাউল করীম, মাওঃ সাইফুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল নোমান, ইসলাম যুব আন্দোলন বাংলাদেশ নগর সভাপতি মুহাম্মাদ ইমরান হোসেন মিয়া, নগর সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর, জেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতী সাইফুল্লাহ খালিদ নাজমুল। বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলাম ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় সূরা সদস্য এনামুল হক সাঈদ, খুলনা জেলা সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মাদ আবু রায়হান।
সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ নগর সহ-সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা সহ-সভাপতি মুহ.ফরহাদ মোল্লা, মোস্তফা আল গালীব, মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, মোঃ বনি আমিন, হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মোহাম্মদ রাজীব গাজী, হাসিবুর রহমান শাকিল, শরিফুল ইসলাম, মোঃ আব্দুর রহমান, শাকিল খলিফা, আতিকুল ইসলাম, ইউসুফ গাজী, মহিবুল্লাহ সোহান, এনায়েতুল্লাহ শেখ, হাবিবুল্লাহ, নাঈম গোলদার, শাহরিয়ার নাজিম, আব্দুল আলিম, সজল হাওলাদার আব্দুল্লাহ, আজিজুল হাকিম সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ!
সম্মেলন শেষে প্রধান অতিথি ২০২৪ সেশনের জন্য নতুন কমিটি ঘোষণা করেন!মহানগর কমিটির সভাপতি হিসেবে মুহা. আব্দুল্লাহ আল মামুন, সহ-সভাপতি মাহদী হাসান মুন্না ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আল গালীব এবং জেলা কমিটির সভাপতি মুহা. ফরহাদ মোল্লা, সহ-সভাপতি মো: নাঈমুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক: মো: রফিকুল ইসলাম।