ঈদের সাথে আরেক আনন্দ সাকিবের

সর্বশেষ আপডেটঃ

ক্রীড়া ডেস্ক : নিষিদ্ধ ছিলেন সাকিব আল হাসান। সেই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আসার পর বোলিংয়ে মোটামুটি পারফর্ম করলেও ব্যাটিংয়ে ছিলেন যাচ্ছেতাই। জিম্বাবুযে সিরিজে এসে ফিরেছেন নিজের পুরোটা নিয়ে। বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও আলো ছড়িয়েছেন। আর তারই পুরস্কার হিসেবে বুধবার (২১ জুলাই) ঈদুল আজহার দিনে আইসিসি থেকে পেলেন সুসংবাদ।
আইসিসির ওয়ানডের ব্যাটিং ও বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে সাকিবের। জিম্বাবুয়ে সিরিজের চমৎকার পাফরম্যান্সে বোলিংয়ে ৯ ধাপ ও ব্যাটিংয়ে ৩ ধাপ এগিয়েছেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার। গত সপ্তাহে হওয়া ওয়ানডে সিরিজের পারফরম্যান্স হিসাব করে আজ নতুন র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বল হাতে ৮ উইকেট নিয়ে সাকিব হয়েছেন সিরিজের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। এই পারফরম্যান্স বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯ ধাপ ওপরে নিয়ে এসেছে বাঁহাতি তারকাকে। যাতে শীর্ষ দশে ঢুকে গেছেন সাকিব। ওয়ানডের বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ে তার অবস্থান এখন ৮ নম্বরে।
ব্যাটিংয়েও উন্নতি হয়েছে তার। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সাকিব খেলেন ম্যাচ জেতানো হার না মানা ৯৬ রানের ইনিংস। দীর্ঘদিন পর রানে ফিরে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ৩ ধাপ এগিয়ে এখন আছেন তিনি ২৮ নম্বরে।
র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে তামিম ইকবালেরও। বাংলাদেশ অধিনায়ক প্রথম দুই ওয়ানডেতে সুবিধা করতে না পারলেও শেষ ম্যাচে খেলেছেন ১১২ রানের অসাধারণ ইনিংস। দারুণ এই ইনিংসে ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা তামিম এগিয়েছেন একধাপ, এখন আছেন ২৩তম স্থানে।
এছাড়া শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে হার না মানা ৯৬ রানের ইনিংস খেলা শিখর ধাওয়ান দুই ধাপ এগিয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ১৬ নম্বরে। অস্ট্রেলিয়ার অ্যালেক্স ক্যারি আছেন ২৭তম স্থানে।
ওয়ানডের ব্যাটিং র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে কোনও পরিবর্তন হয়নি। শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন বাবর আজম। দ্বিতীয় স্থানে বিরাট কোহলি। বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন ট্রেন্ট বোল্ট। দ্বিতীয় স্থানে মুজিব উর রহমান। চার নম্বরে বাংলাদেশের মেহেদী হাসান মিরাজ।
(ঊষার আলো-এমএনএস)