করোনা টেস্টের আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ, আত্মগোপনে স্টাফ প্রকাশ

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : খুলনায় বিদেশগামীদের করোনার নমুনা পরীক্ষার ২ কোটি ৫৮ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে আত্মগোপন করেছেন খুলনা জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট প্রকাশ কুমার দাস। বিষয়টি নিশ্চিত করে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও সিভিল সার্জন ডা: নিয়াজ মোহাম্মদ এ ঘটনায় সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছ।

সিভিল সার্জন বলেন, ২৫০ শয্যা বিশিস্ট জেনারেল হাসপাতালে বিদেশগামীদের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষার ফি গ্রহণের দায়িত্বে ছিলেন হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট প্রকাশ কুমার দাস। কিন্তু যত রোগী নমুনা পরীক্ষা করাতেন তার থেকে কম রোগী দেখিয়ে খাতায় এন্ট্রি করতেন। খাতায় এন্ট্রি অনুযায়ী দিনশেষে কোষাধ্যক্ষকে টাকা বুঝিয়ে দিয়ে বাকি টাকাটা নিজে আত্মসাৎ করতেন।

নিয়াজ মোহাম্মদ আরও বলেন, এ বিষয়ে সন্দেহ হওয়ার পর গত বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) তার কাছে হিসাব চাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) তার হিসাব দেয়ার কথা থাকলেও তিনি তা দেননি। দুপুরে কাউকে কিছু না জানিয়ে অফিস থেকে চলে যান। এরপর থেকে তিনি আর অফিসে আসেন না, তার বাসায় লোক পাঠিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

সিভিল সার্জন বলেন, এ বছরের এপ্রিল মাসে হিসাবে গড়মিল আসলে প্রকাশ কুমার দাসকে শোকজ করা হয়। সে সময় থেকে সে বারবার সময় নেন। পরবর্তীতে গত ২২ আগষ্ট এই ঘটনা তদন্তে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি গত ১৬ সেপ্টেম্বর প্রকাশ কুমার দাসকে দোষী সাব্যস্ত করে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়। এরপর গত বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) থেকে তিনি আত্মগোপন করেন। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়কে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। এখন তার বিরুদ্ধে আইনজীবীকে দিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)