UsharAlo logo
বৃহস্পতিবার, ৮ই জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

‘কারিগরি আমলাচক্রে’ বাস্তবায়ন হচ্ছে না প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস

usharalodesk
মে ২৩, ২০২৩ ১:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঊষার আলো রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি ও আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সুপারিশের আলোকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের পেশাগত সমস্যার সমাধান এবং বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড ২০২০ ও ঢাকা মহানগর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৮ সংশোধনপূর্বক গ্যাজেট প্রকাশে বিলম্বের প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদ।

মঙ্গলবার (২৩ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান সংগঠনের নেতারা।লিখিত বক্তব্যে পরিষদের সদস্য সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ২০১২ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত আয়োজিত আইডিইবির জাতীয় সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড ২০২০ এবং ঢাকা মহানগর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৮ এর জনস্বার্থবিরোধী ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের অধিকার হরণসহ আপত্তিকর বিভিন্ন ধারা, উপধারা সংশোধনপূর্বক গেজেট প্রকাশ, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে অন্যান্য কারিগরি পেশাজীবীদের ন্যায় একটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান, ডিজাইন ও প্ল্যানিং এ কর্মরত উপ-সহকারী প্রকৌশলীদের সহকারী প্রকৌশলীদের ন্যায় তিনটি বিশেষ ইনক্রিমেন্ট ব্যক্তিগত ভাতা হিসেবে প্রদান সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা ও সরকারি মালিকানাধীন কোম্পানিগুলোতে উপ-সহকারী প্রকৌশলী/সমমানের পদ থেকে সহকারী প্রকৌশলী/সমমানের পদে পদোন্নতির কোটা ৫০ শতাংশে উন্নীতকরণ ও সর্বোচ্চ পদ পর্যন্ত পদোন্নতির সুযোগ অবারিত করা, বিভিন্ন সংস্থা ও বিদ্যুৎ কোম্পানিতে ইঞ্জিনিয়ারিং টিম কনসেপ্ট অনুসারে সংস্থার জন্য কল্যাণকর সমন্বিত অর্গানোগ্রাম প্রণয়ন এবং পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটসহ কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষায় টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মাধ্যমিক স্তরে এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষা, বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন টিটিসিতে বিদ্যমান শিক্ষক-ছাত্রদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন। তবে দীর্ঘদিনের অপেক্ষাতেও সমস্যা সমাধানে কোনো অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে একাধিকবার বলেছেন, দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন কর্মযজ্ঞের ৮৫ ভাগ কাজ ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের দ্বারা সম্পাদিত হয়ে থাকে। তিনি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের জনগণের কল্যাণে কাজ করার স্বীকৃতি দিয়ে গণপ্রকৌশলী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। সেই উন্নয়ন কর্মীদের অত্যন্ত কূটকৌশলে সরকারের বিপক্ষে মাঠের আন্দোলনে ঠেলে দেওয়ার কৌশল নিয়েছে একটি চিহ্নিত কারিগরি আমলাচক্র।

তিনি আরও বলেন, সে আমলাচক্র ডিপ্লোমা আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত চার বছরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ তিন বছরে আনা, সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বয়স্ক শিক্ষার্থী ভর্তি করা, বিভিন্ন প্রকৌশল সংস্থায় জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করে ষড়যন্ত্রমূলক পদোন্নতি প্রদান, আন্তর্জাতিক ইঞ্জিনিয়ারিং টিম কনসেপ্ট উপেক্ষা করে অর্গানোগ্রাম প্রণয়ন করে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের কর্মপ্রবেশের পথ রুদ্ধ করা, বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থায় ও প্রতিষ্ঠানে সরকার নির্ধারিত পদবি ও বেতন স্কেল না দিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আহ্বায়ক মির্জা এটিএম গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল কুদ্দুছ, মো. গিয়াস উদ্দিন, মো. শাহজাহান কবীর, ইদরীস আলী, আমানুল্লাহ খান ইউসুফজি, মেহেদী হাসান, যুগ্ম সদস্য সচিব সৈয়দ মুস্তাসীর হাফিজ, জি এম আকতার হোসেন, সাইফুল আলম মোল্লা, ঢাকা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক মো. আব্দুল মান্নান, সদস্য সচিব দেওয়ান মো. ইলিয়াস প্রমুখ।

তাদের দাবিগুলো হলো–

১. প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ও সরকারের আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সুপারিশের আলোকে ইঞ্জিনিয়ারের সংজ্ঞা নির্ধারণসহ বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড (বিএনবিসি) ২০২০ ও ঢাকা ইমারত নির্মাণ বিধিমালা-২০০৮ এর জনস্বার্থবিরোধী সংজ্ঞা ও ধারা-উপধারা সংশোধনপূর্বক গেজেট প্রকাশ করতে হবে।

২. প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি ও নির্দেশিত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে অন্যান্য পেশাজীবীদের ন্যায় একটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান এবং ডিজাইন ও প্লানিং সংস্থায় কর্মরত উপ-সহকারী প্রকৌশলীদের সহকারী প্রকৌশলীদের ন্যায় তিনটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট, পদোন্নতির কোটা ৫০ শতাংশে উন্নীতকরণ, বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন কোম্পানিতে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সার্ভিস রুল অনুযায়ী জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদান, সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা, পেট্রোবাংলা, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের ইস্টার্ন রিফাইনারি, যমুনা, মেঘনা ও পদ্মা অয়েল কোম্পানি এবং বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন কোম্পানিতে ইঞ্জিনিয়ারিং টিম কনসেন্ট অনুযায়ী অর্গানোগ্রাম প্রণয়ন এবং প্রাইভেট সেক্টরে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের ন্যূনতম বেতন ও পদবি নির্ধারণ করা, বিজেএমসির বন্ধ পাটকলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী চাকরিতে বহাল রাখা, মেরিন ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের যোগ্যতা অনুযায়ী সিডিসি সনদ প্রদান, টিটিসির শিক্ষকদের এক বেতন স্কেলে তিন পদ প্রথা বাতিল করে পদোন্নতির জন্য উচ্চতর ধাপে বেতন স্কেল নির্ধারণ করে অমানবিক পদোন্নতির প্রথা বাতিল করা, এসএসসি ভোেকশনাল শিক্ষকদের কমন সিনিয়রিটির ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদান, সহকারী প্রধান শিক্ষক (কারিগরি) পদ সৃষ্টি ও ব্যবহারিক ক্লাসের জন্য ল্যাব ও যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করতে হবে।

৩. উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকারের পরিকল্পনা সুষ্ঠু বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে দক্ষ ও আধুনিক জ্ঞাননির্ভর টিভিইটি গ্র্যাজুয়েট তৈরির লক্ষ্যে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও টিএসসিতে তীব্র শিক্ষক সংকট দূরীকরণ, শ্রেণিকক্ষ, ল্যাব, ওয়ার্কশপ সংকটসহ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও টিএসসির শিক্ষকদের পদোন্নতি প্রদান, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নিয়োগবিধি সংশোধন করে ক্যাডার ও নন-ক্যাডার পদগুলো একীভূত করে বিদ্যমান নন-ক্যাডার পদগুলো জনবলসহ ক্যাডারে আত্মীকরণ প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন, এসটিইপি প্রকল্পের শিক্ষকদের প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন অনুযায়ী নিয়মিতকরণ ও ৩৪ মাসের বকেয়া বেতন প্রদান, সরকারের আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সুপারিশের আলোকে ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ভাতা বৃদ্ধি এবং ২৯টি ইমার্জিং টেকনোলজির বেকার ডিপ্লোমা গ্র্যাজুয়েটদের বিভিন্ন সরকারি সংস্থায় পদ সৃষ্টিসহ নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে।

৪. সরকার অনুমোদিত চলমান চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাকোর্সকে চার বছরেই রাখার প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ কর্তৃক এ সংক্রান্ত ইতোপূর্বে গঠিত কমিটি অবিলম্বে বাতিল ঘোষণা করতে হবে।

দাবি বাস্তবায়নে পরবর্তী কর্মসূচি–

১. ২৪ থেকে ৩০ মে ২০২৩ ঢাকায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন ভিত্তিক প্রতিবাদ সভা ও নেতাদের মতবিনিময়।

২. ৩১ মে ২০২৩ ঢাকাসহ সব জেলা শহরে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের অংশগ্রহণে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী সমীপে স্মারকলিপি প্রেরণ।

৩. ৫ জুন ২০২৩ ঢাকা বিভাগের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের অংশগ্রহণে প্রতিবাদ সমাবেশ। ঢাকা বিভাগের সব জেলার সদস্য প্রকৌশলীরা এ সমাবেশে যোগদান করবেন।

৪. ৬ জুন থেকে ১৫ জুন ২০২৩ কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রতিটি জেলায় সাংগঠনিক সফর ও প্রতিবাদ সমাবেশ।

৫. ১৭ জুলাই ২০২৩ দেশের সব অঞ্চল থেকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের অংশগ্রহণে ঢাকায় মহাসমাবেশ এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রধানমন্ত্রী সমীপে স্মারকলিপি প্রদান।

ঊষার আলো-এসএ