কুষ্টিয়া সওজ এর বিচারাধীন সম্পত্তির গাছ কর্তনের দরপত্র

সর্বশেষ আপডেটঃ

মোঃ সুজন বিশ্বাস, কুষ্টিয়া : আদালতে বিচারাধীন সম্পত্তির ওপর কুষ্টিয়া সড়ক সার্কেল ভবন নির্মাণের জন্য অবৈধভাবে গাছ বিক্রয়ের জন্য সম্প্রতি দরপত্র আহবান করেছেন রাজশাহী সওজের জোন অফিসের প্রকৌশলী বৃক্ষপালনবিদ ড. মোঃ জাহাঙ্গীর ফিরোজ।

গত ২৫ জুলাই কুষ্টিয়া সড়ক ও জনপথের গাছ খেকো নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া পরিবেশ ক্লাব, কুষ্টিয়া পরিবেশ সাংবাদিক সমিতি ও সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের ডাকে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে পরিবেশ ক্লাবের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। উক্ত স্মারকলিপি জেলা প্রশাসক সাইদুল ইসলাম গ্রহন করেন।

মুজিব শতবর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন সারাদেশে বৃক্ষরোপন করছেন, ঠিক সে সময় কুষ্টিয়া সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী মুজিববর্ষে বৃক্ষ নিধনে উদ্যত হয়েছেন। তাও আবার উক্ত সম্পত্তি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। মামলা চলমান থাকা অবস্থায় কিভাবে গাছ কেটে সওজের ভবন নির্মাণ হতে পারে এটা নিয়ে জনমনে কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে ইতিপূর্বে একাধিকবার সংবাদ পরিবেশিত হলেও কোন প্রকার কর্ণপাত করেন নাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য যে, কুষ্টিয়া সড়ক সার্কেল ভবন নির্মানের জন্য বরাদ্দ ছিল চৌড়হাস সিএনবি অফিসের মধ্যে। হঠাৎ করেই গত কয়েক মাস ধরে সাদ্দাম বাজার মোড়ে সড়ক ও জনপথের অফিসের সম্মুখে সার্কেল অফিস নির্মাণের জন্য সাইনবোর্ড টাঙিয়ে রেখেছেন।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ জাহিদুল ইসলামের সাথে কথা বললে, তিনি বলেন অক্সিজেন নামের এই সকল নামিদামি গাছ কেটে সড়ক সার্কেল অফিস নির্মাণ করাটা সমীচীন নয়। এছাড়াও উক্ত সম্পত্তি নিয়ে আদালতে মামলা বিচারাধীন রয়েছে বিচারাধীন থাকা অবস্থায় গাছ কেটে ভবন নির্মিত হতে পারে না। তিনি আরো বলেন অবৈধভাবে গাছ বিক্রয়ের জন্য সম্প্রতি দরপত্র আহবান করেছেন রাজশাহী সওজের জোন অফিসের নির্বাহী বৃক্ষপালনবিদ ড. মোঃ জাহাঙ্গীর ফিরোজ। এহেন কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করছি মর্মে যে, চৌড়হাসের নির্দিষ্ট স্থানে সার্কেল অফিস নির্মিত করা হোক।

দরপত্র আহবানের বিষয়ে রাজশাহী সওজের জোন অফিসের নির্বাহী বৃক্ষপালনবিদ ড. মোঃ জাহাঙ্গীর ফিরোজের মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, উক্ত জায়গা নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা বিচারাধীন আছে সেটা আমার জানা ছিল না। তিনি এটাও বলেন, কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর চাহিদার প্রেক্ষিতে আমার দপ্তর হতে এই দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)