খুলনাবাসীর সেবা দিতে আমরা সবসময় প্রস্তুত : শেখ সোহেল

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : করোনা ভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়েন্ট প্রাদুর্ভাবে বাংলাদেশের অন্যান্য শহরের মত খুলনা শহরেও করোনা আক্রান্তে হার বৃদ্ধি পেয়েছে। যেখানে হাসপাতাল ও অক্সিজেন ব্যাংকগুলো করোনা আক্রান্ত রুগীদের অক্সিজেন সেবা দিতে হিমসিম খাচ্ছে। সেখানে এরই মধ্যে খুলনাবাসীর পাশে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করে মানুষের আস্থা ও ভালবাসার স্থান করে নিয়েছে “শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক”, “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক”।

অপর দিকে খুলনা-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল এর সহযোগিতায় অসহায় গরীব রুগীদের রাত দিন ২৪ ঘন্টা বিনামূল্যে অ্যাম্বেুলেন্স সেবা প্রদান করে যাচ্ছে “সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস”। “শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক”, “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক” রাত দিনও প্রতিকূল আবহাওয়ায় মধ্যে ২৪ ঘন্টা খুলনাবাসীকে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করে আসছে। করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হলে গত বছরের ২১ শে জুলাই যাত্রা শুরুর পর থেকে শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক নগরীতে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পৌছিয়ে দিচ্ছে করোনা আক্রান্তের মানুষের দ্বারে দ্বারে। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও বিসিবির পরিচালক শেখ সোহেল এর পৃষ্ঠপোষকতায় ও সার্বিক সহযোগিতায় খুলনা মহানগর যুবলীগের তত্বাবধানে ও খুলনা রেড ক্রিসেন্ট এর পরিচলনায় গত ২৯ জুন ২০২১ শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক এর যাত্রা শুরু করে। ইতোমধ্যে এই বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা নগরীতে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। নগরীর শেরেবাংলা রোডস্থ শহীদ শেখ আবু নাসের এর নিজস্ব বাড়িতে কন্টোল রুমের মাধ্যমে একদল পরিশ্রমী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে স্বেচ্ছাসেবক টিমের মাধ্যমে এ সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
“শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক” এ ফোন করে ১৫ মিনিটের মধ্যে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পেয়ে নগরীর মোহাম্মদনগর এলাকার এক রুগীর কন্যা কান্নাজড়িত কন্ঠে তার প্রতিক্রিয়ায় জানান “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক থেকে ফ্রি অক্সিজেন সেবা পেয়ে আমাদের কৃতজ্ঞতা জানানো ভাষা নাই, আল্লাহ শেখ সোহেলকে যেন মানুষের আরও সেবা করার তৌফিক দেয়, তিনি যেন জনগণের পাশে থাকতে পারে”। এ বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার, বিসিবির পরিচালক ও বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত শেখ সোহেল বলেন “আমার পরিবার সারাজীবন সাধারণ মানুষের কল্যানে কাজ করে আসছে, মানুষের বিপদে আপদে আমরা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছি। তিনি আরও বলেন খুলনার সাথে আমার নাড়ীর সম্পর্ক্য, এই নগরীর সাথে আমার সুখ দুঃখ জড়িত। এই মহামারীর সময়ের খুলনাবাসীর বিপদে আমি এবং আমার পরিবার সর্বাত্মক সহযোগিতা করে যাচ্ছি। করোনা শুরু থেকে আমি ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে খুলনাবাসীর ঘরে ঘরে ত্রাণ সমাগ্রী পৌছিয়ে দিয়েছি। এই মহামারীতে করোনায় আক্রান্তদের অক্সিজেন ও অ্যাম্বুলেন্স সেবার কোন সংকট হবে না। যা যা করা প্রয়োজন আমরা সেগুলো করবো। খুলনাবাসীর সেবা দিতে আমরা সবসময় প্রস্তুত। ইনশাআল্লাহ আগামীতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে এবং আগামী দিনগুলিতে যে কোন সংকট মোকাবেলায় আমি ও আমার পরিবার খুলনাবাসীর পাশে থাকবো। তিনি আরও বলেন আপনারা স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন, মাক্স মাক্স পরিধান করুন এবং সরকারী বিধি নিষেধ মেনে চলুন।”
এই অক্সিজেন সেবা ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা সার্বিকভাবে তত্বাবধায়ন ও মনিটরিং করে যাচ্ছেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, খুলনা মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান চৌধুরী মোঃ রায়হান ফরিদ, সাবেক ছাত্রনেতা শেখ মোঃ আবু হানিফ, খুলনা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, ২৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়েজুল ইসলাম টিটো, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন, মহানগর যুবলীগের সদস্য আব্দুল কাদের শেখ, কাজী কামাল হোসেন, শওকত হোসেন, মহিদুল ইসলাম মিলন, মশিউর রহমান সুমনসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।
(ঊষার আলো-এমএনএস)