চিরনিদ্রায় শায়িত জেপির ভাইস চেয়ারম্যান চন্দন

সর্বশেষ আপডেটঃ
প্রয়াত চন্দন - ফাইল ছবি

ঊষার আলো প্রতিবেদক : চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন জাতীয় পার্টি-জেপির ভাইস চেয়ারম্যান ও খুলনা নাগরিক ফোরামের চেয়ারপারসন শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দন। শুক্রবার (১২ মার্চ) বাদ জুম্মা খুলনা মহানগরীর পাবলা সবুজসংঘ মাঠে জানাযা শেষে তার মরদেহ গোয়ালখালী কবরস্থানে দাফন করা হয়।
জানাযায় খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুজিৎ কুমার অধিকারী, সাবেক মেয়র ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, প্যানেল মেয়র মো. আমিনুল ইসলাম মুন্না, সরকারি বিএল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক জাফর ইমাম, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট গাজী আব্দুল বারী ও অ্যাডভোকেট এস আর ফারুক, জেলা জেপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ, ড. এস এম জাকারিয়া, গাজী আব্দুস সামাদ, মহানগর জেপি সভাপতি কাজী মাসুদ আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক ডা. এম এন আলম, ওয়ার্কার্স পার্টি নেতা অ্যাডভোকেট মিনা মিজানুর রহমান, সাম্যবাদী দল নেতা এস এম ইকবাল, কেসিসির ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শামসুদ্দীন, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আশফাকুর রহমান কাঁকন, ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আরিফ হোসেন মিঠু এবং মরহুম শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দনের ছেলে শরীফ শাহরিয়ার হোসেন এবং তার আত্মীয়স্বজনসহ বিপুলসংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং খুলনা মহানগর ও জেলা জাতীয় পার্টি-জেপি নেতৃবৃন্দ শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দনের কফিনে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
গত বৃহস্পতিবার সকালে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে বিকালে তাকে খুলনার বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন ওই দিন বিকাল সাড়ে ৫টায় তিনি মারা যান।