চুরির অভিযোগে জামায়ের বিরুদ্ধে নববধূর মামলা

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : শ্বশুরবাড়ির সবাইকে অচেতন করে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার চুরি করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে জামাইয়ের বিরুদ্ধে। গত ৩ মার্চ রাতে চাঁদপুর হাজীগঞ্জের গন্ধব্যপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ০৪ মার্চ বৃহস্পতিবার অভিযুক্ত স্বামী খাজে আহম্মেদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে তার স্ত্রী নাজমা বেগম।
জানা যায়, হাজীগঞ্জ উপজেলার ৫ নম্বর সদর ইউনিয়নের সুদিয়া গ্রামের খাজে আহম্মেদ বিয়ে করে একই উপজেলার গন্ধব্যপুর ইউনিয়নের ফকির মোহাম্মদ বেপারির মেয়ে নাজমা বেগমকে। বিয়ের পর তারা মেয়ের জামাইয়ের চুরি পেশা সম্পর্কে জানতে পারে।
নাজমার ভাই শামীম বলেন, আমার মা, বোন (অভিযুক্তের স্ত্রী) এবং আমার মেয়ে শামীমা আক্তার ঘুমাচ্ছিল। গত ৩ মার্চ গভীর রাতে খাজে আহম্মেদ আমাদের ঘরে ঢুকে নেশাজাতীয় দ্রব্য তাদের নাকে-মুখে দিয়ে অচেতন করে। এই ফাঁকে ঘরে থাকা টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইলসহ দামি জিনিসপত্র মালামাল লুটে করে নেয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার অভিযুক্তের স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেছে।
স্ত্রী নাজমা বলেন, খাজে আহমেদ চুরির দায়ে আগেও অনেক বার জেলে খেটেছেন। বিষয়টি আমরা বিয়ের পরে জানতে পেরেছি। তিনি এখন আমার পরিবারের ওপর হাত দিয়েছে। হাজীগঞ্জ থানায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত শেষে সত্যতা পেলে মামলা হবে।

 

 

(ঊষার আলো-এম.এইচ)