জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা স্থগিত করলো যুক্তরাষ্ট্র

সর্বশেষ আপডেটঃ
31
0

ঊষার আলো ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র টিকা নেয়ার পর বেশ কয়েকজনের শরীরে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার প্রয়োগ সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে। অন্যদিকে মার্কিন স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের সতর্কতাকে গুরুত্ব দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নেও (ইইউ) এই টিকার প্রয়োগ স্থগিত করা হয়েছে।
ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে এই টিকা নেয়ার পর এখন পর্যন্ত মোট ছয় জনের শরীরে রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে।
যুক্তরাষ্ট্রে জনসনের টিকা নেয়ার পর রক্ত জমাট বাঁধলেও ইইউ ও দক্ষিণ আফ্রিকায় এখনো তেমন ঘটনা ঘটেনি। পুরো পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) জানিয়েছে, জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেয়ার পর এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট ছয়জন রক্ত জমাট বাঁধার শিকার হয়েছেন। আক্রান্তরা সবাই নারী এবং তাদের বয়স আঠারো থেকে আটচল্লিশের মধ্যে।
ফুড অ্যান্ড ড্রাগ বিভাগের বায়োলজিক ইভ্যালুয়েশন অ্যান্ড রিসার্চ কেন্দ্রের পরিচালক ডা. পিটার মার্কস এবং সরকারি রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের প্রধান উপ-পরিচালক ডা. অ্যানি স্চুচ্যাট এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘অতি সাবধানতা অবলম্বনে আমরা এ টিকার ব্যবহার বন্ধ করছি। এ মুহূর্তে এই নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া খুব বিরল ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে।’
এ সপ্তাহে ইইউভুক্ত দেশগুলোয় টিকা সরবরাহের কার্যক্রম শুরু করেছিল জনসন অ্যান্ড জনসন। ইইউর দেশগুলোয় টিকা পাঠানোর ঠিক ২৪ ঘণ্টা আগে জনসন অ্যান্ড জনসন জানায়, তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নে টিকা সরবরাহ স্থগিত করেছে। যদিও ইইউ এখনো এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। তাদের বিশেষজ্ঞরা যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী পদক্ষেপের দিকে লক্ষ রাখছেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ