ডুমুরিয়া থেকে ভুয়া চিকিৎসক দ্বিতীয়বার আটক

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় র‌্যাবের অভিযানে ভুয়া চিকিৎসক দ্বিতীয়বারের মত আটক হয়েছেন। আটক চিকিৎসকের নাম তন্ময় অধিকারী (২৭)। ইতিপূর্বে ৬ মাস আগেও সে একবার একই অপরাধে আটক হয়েছিল। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে র‌্যাব-৬ এর একটি দল উপজেলা সদরে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। আটকের পর তাকে ১ মাসের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, ডুমুরিয়া উপজেলার রাজ মেডিকেল ফার্মেসীর সামনের চেম্বারে এই কথিত চিকিৎসক তন্ময় অধিকারী নিজেকে জেনারেল মেডিসিন, মা ও শিশু রোগে অভিজ্ঞ, ও ডিএমএফ, ঢাকা, বিএমডিসি, রেজিঃ নং- ডি-১১৬৪২, এফ,পি ২৫০ শয্যা হাসপাতাল খুলনার সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে এবং ব্যবস্থাপত্র ও ভিজিটিং কার্ডে একই পদ-পদবী ব্যবহার করে রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৬ খুলনার সদস্যরা সোমবার দুপুরে সেখানে উপস্থিত হয়ে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল এ্যাক্ট ২০১০/২৯ ( ১১) ধারা মোতাবেক তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা এবং এক মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।

উল্লেখ্য, কথিত চিকিৎসক তন্ময় অধিকারীকে ৬ মাস আগেও একই অপরাধে ডুমুরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ডাঃ সঞ্জীব কুমার দাস ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। পরে কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে পুনরায় রাজ মেডিকেল ফার্মেসীর সামনে একটি চেম্বার খুলে রোগী দেখা শুরু করেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)