তালায় ছুঁড়ে মারা গরম পানিতে ঝলসে গেলো পাওনাদারের মুখমণ্ডল

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলায় বাদাম বিক্রির পাওনা টাকা চাইলে শহীদ বিশ্বাস (৩০) নামে এক যুবকের মুখমণ্ডল চায়ের ফুটন্ত গরম পানি ছুড়ে মেরে ঝলসে দিলেন দেনাদার আতাউর বিশ্বাস। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার জাতপুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত শহীদ বিশ্বাস উপজেলার জাতপুর গ্রামের ওয়াদুত বিশ্বাসের পুত্র। সে বর্তমানে তালা উপজেলা হাসপালে ভর্তি রয়েছে।

আহত বাদাম বিক্রেতা শহীদ বিশ্বাস বলেন, ফেরি করে বাদাম বিক্রি করে তিনি সংসার চালান। ২০ সেপ্টেম্বর ইউপি নির্বাচনের দিন ইউপি সদস্য প্রার্থী জাতপুর বাজারের চা দোকানি আতাউর বিশ্বাস ভোটকেন্দ্রের সামনে থেকে তার কাছ থেকে দুই হাজার টাকার বাদাম কিনে ভোটারদের মাঝে বিলি করেন। এরপর বাদাম কেনার টাকা না দিয়ে ভোটকেন্দ্র থেকে বাড়ি চলেন যান আতাউর বিশ্বাস।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতপুর বাজারে আতাউরের চা দোকানে যান বাদাম বিক্রেতা শহীদ বিশ্বাস। এ সময় আতাউরের কাছে পাওনা টাকা চান শহীদ। এতে আতাউর ক্ষিপ্ত হয়ে  চায়ের ফুটন্ত গরম পানি শহীদের মুখে ছুড়ে মারেন। ফলে শহীদের মুখ ঝলসে যায়। স্থানীয়রা আহত শহীদকে উদ্ধার করে তালা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অভিযুক্ত আতাউর বিশ্বাস জানান, তার চায়ের দোকানে পাওনা টাকা চাইতে এসে অশ্লীল ভাষায় গালগাল করতে থাকে শহীদ বিশ্বাস। ওই সময় রাগের মাথায় শহীদের উপর জগ ছুড়ে মারি। তবে জগে গরম পানি ছিলো, সেটি খেয়াল করিনি। ভুলবশত এটি হয়েছে বলে স্বীকার করেন। এদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসক জানান, আহত শহীদের চিকিৎসা চলছে। শহীদের মুখমণ্ডলের বেশ কিছু অংশ ঝলসে গেছে।

 

(ঊষার আলো-আরএম)