দলীয় প্রতীকে ইউপি নির্বাচন

দ্বিতীয় তফসীলে বাগেরহাটের ৫ ইউনিয়নে নির্বাচন ১১ নভেম্বর

সর্বশেষ আপডেটঃ

আরিফুর রহমান, বাগেরহাট : চলমান ইউপি নির্বাচনের দ্বিতীয় তফসীলে বাগেরহাট জেলার ৫টি ইউনিয়নের নির্বাচন আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

তফসীল ঘোষিত এ ৫ ইউনিয়ন হলো বাগেরহাট জেলা সদরের গোটাপাড়া, ষাটগম্ভুজ ও যাত্রাপুর ইউনিয়ন, মোল্লাহাট উপজেলার গাংনী ও ফকিরহাট উপজেলার মূলঘর ইউনিয়ন পরিষদ।

এবারে নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত অংশ গ্রহণ না করায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ব্যানারে প্রতিটা ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন। তবে দলীয় প্রতীক পেলে সাধারণ ভোটারদের কাছে না গেলে হয় এমন মনোবাসনা পোষণ করা সম্ভাব্য প্রার্থীরা দলীয় নেতাদের কাছে ধন্যা দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

দ্বিতীয় তফসীলের নির্বাচন বিষয়ে বাগেরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বেনজির আহম্মেদ ফরাজি জানান, প্রথম তফসীল ঘোষণার পর জেলার ৩টি ইউনিয়নের ৩ জন চেয়ারম্যান মৃত্যুবরণ করায় ওই ৩ ইউনিয়নে নির্বাচন স্থগিত থাকে। ওই ৩ ইউনিয়নের নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশন থেকে আসেনি। শুধু প্রথম তফসীলের বাইরে থাকা জেলার ৫টি ইউনিয়ন ও শূন্য থাকা কচুয়া উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের তফসীল এসেছে।

অপরদিকে ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপের তফসীলে বাগেরহাট জেলার মনোনীত বৈধ ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যুজনিত কারণে স্থগিত থাকা ৩টি ইউনিয়নের নির্বাচন আগামী ২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এ ৩ ইউনিয়ন হলো জেলার কচুয়া সদর ইউনিয়ন, রামপালের রাজনগর ইউনিয়ন ও মোড়েলগঞ্জ উপজেলার খাউলিয়া ইউনিয়ন।

নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন পরিচালনা অধিশাখা-২ এর উপ-সচিব মোহামম্মদ আতিয়ার রহমানের স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় বলা হয়, এ ৩ ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য ও সাধারণ সদস্য প্রার্থীরা প্রথম ধাপের তফসীল অনুযায়ি নির্বাচনে অংশ নিবেন। শুধু চেয়ারম্যান পদে সিডিউল মতে মনোনয়ন জমা দিবেন। নির্বাচন ২ নভেম্বর যথাযথ নিয়মে অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মাদ বেনজির আহম্মেদ ফরাজি শুক্রবার (১ অক্টোবর) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)