দ্রুত বাড়ছে যমুনার পানি

বন্যার আশঙ্কা সিরাজগঞ্জে

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ভারী বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিরাজগঞ্জের যমুনা নদীর পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নদীর পানি সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধের (হাট পয়েন্টে) ১৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ১.২৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দ্রুতগতিতে পানি বৃদ্ধির কারণে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।
আজ ৫ জুলাই সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সিরাজগঞ্জের পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
প্রতিদিনই যমুনায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকার কারণে জেলার সদর, কাজিপুর, চৌহালী ও শাহজাদপুর উপজেলার চরাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এতে পানি বন্দি হয়ে আছে এসব এলাকার কয়েক হাজার মানুষ। এদিকে পানি বৃদ্ধির কারণে নদী তীরবর্তী এলাকায় ভাঙন শুরু হয়েছে। সেই সাথে তলিয়ে যাচ্ছে এসব এলাকার বীজতলা, সবজি বাগান, পাট ও তিলখেত।
সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেছেন, ৩ জুলাই শনিবার সকাল থেকে যমুনা নদীর পানি কিছুটা কমলেও ৪ জুলাই রোববার সকাল ৬টা থেকে আজ ৫ জুলাই সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ১৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ১.২৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। আগামী কয়েক দিনে এ পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে।
জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. আব্দুর রহিম বলেন, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণে যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধি পেলেও এখন পর্যন্ত জেলার কোথাও বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেনি। বন্যার জন্য আগাম প্রস্তুতি রয়েছে আমাদের। বর্তমানে ২ টন চাউল ও নগদ সাড়ে ৭ লাখ টাকা মজুদ আছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

(ঊষার আলো- এম.এইচ)