নিষেধাজ্ঞা শুরুর আগের দিনে মোংলায় ইলিশ বিক্রি হচ্ছে দ্বিগুণ দামে

সর্বশেষ আপডেটঃ
মোঃ এরশাদ হোসেন রনি, মোংলা : আগামীকাল ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত  ইলিশ ধরা, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহণ ও মজুদ নিষিদ্ধ থাকবে। এ কারণেই হঠাৎ করে মোংলার মাছ বাজারে ইলিশের দাম বাড়িয়েছে অসাধু ব্যবসায়ীরা।আজ হঠাৎ করেই মোংলায় বেড়েছে ইলিশের দাম। নিষেধাজ্ঞা শুরু হচ্ছে তাই শেষ মুহুর্তে ইলিশ কিনতে বাজারে উপচে পড়া ভিড় ক্রেতা সাধারণের।আর এ সুযোগই ভালো ভাবে কাজে লাগিয়েছে অসাধু ব্যাবসায়ীরা।ইলিশের দাম ও নিচ্ছেন আগের দামের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ।
মোংলা পোর্ট মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ আফজাল ফরাজিও তা স্বীকার করে বলেন, যেহেতু মোংলা নদীসহ সুন্দরবন সংলগ্ন নদ-নদীতে ইলিশ পাওয়া যাচ্ছেনা, তাই দূরের মোকাম থেকে তাদের বেশি দামে ক্রয় করতে হচ্ছে। এ কারণে তাদের ব্যবসায়ীরাও বেশি দাম ইলিশ বিক্রি করছেন।
রবিবার সকাল ও দুপুরে পৌর শহরের প্রধান মাছ বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দেড় কেজি ওজনের ইলিশের দাম ১৮০০ থেকে ২০০০ এবং এক কেজি ওজনের ইলিশের দাম ১৪০০ থেকে ১৬০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
সাধারণ ক্রেতা হারুন অর রশিদ ও দীনেশ সাহা বলেন, দুই একদিন আগে যে দামে ইলিশ বিক্রি হয়েছে এখন তা প্রায় দ্বিগুন দামে বিক্রি হচ্ছে। সকালে গিয়েছিলাম বাজারে বড় ইলিশ না হলেও ঝাটকা সাইজের নিবো তারও দ্বিগুন দাম বেড়েছে। এ সব দেখার কেউ নেই, প্রশাসনেরও কোন তদারকি নেই।
মোংলা উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ জাহিদুল ইসলাম বলেন, সাগর ও নদীতে ইলিশের প্রজনন বৃদ্ধি করতে আগামী ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ সময়ে যারা ইলিশ ধরবে এবং ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহণ ও মজুদ করবে তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হবে। নদীতেও অভিযান চালানো হবে। তবে এই নিষেধাজ্ঞার আগের দিন যারা ইলিশ বেশি দামে বিক্রি করছে তাদের ক্ষেত্রে এই মুহুর্তে আমাদের কিছু করার নেই বলেও জানান তিনি।
(ঊষার আলো-আরএম)