নৌবাহিনীর ৬টি জাহাজ রোহিঙ্গাদের নিয়ে ভাসানচরের উদ্দেশে

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : একদিনে রেকর্ড পরিমাণ ২ হাজার ২৬০ জন রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হচ্ছে। নৌবাহিনীর ৬টি জাহাজে করে তাদেরকে ভাসানচরে নেয়া হয়। আর উন্নত জীবনের আশায় স্বপ্রণোদিত হয়ে হাজার হাজার রোহিঙ্গা ভাসানচর যেতে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।
০৩ মার্চ বুধবার সরেজমিনে দেখা যায়, কুয়াশার কারণে জাহাজ ছাড়তে একটু দেরি হলেও রোহিঙ্গাদের মধ্যে একটুও ক্লান্তি ছিল না। অনেকটা আনন্দ-উচ্ছ্বাস রয়েছে তাদের এই ভাসানচর যাত্রায়।
এর আগে ০২ মার্চ মঙ্গলবার রাতে কক্সবাজার টেকনাফ এবং উখিয়া থেকে ৫০টিরও বেশি বাসে করে নগরীর পতেংগা বিএফ শাহীন কলেজে আনা হয় রোহিঙ্গাদের।
৬টি জাহাজে করে রোহিঙ্গাদের যাত্রা তদারকি করতে বোট ক্লাব জেটিতে নৌবাহিনীর এরিয়া কমান্ডারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছিলেন ।
ভাসানচরের রোহিঙ্গা যাত্রীরা বলেন, কক্সবাজারের আশ্রয় শিবিরগুলোতে ছিল তাদের দুর্বিষহ জীবন। এখন তারা বাংলাদেশ সরকারের আশ্বাসে উন্নত জীবনের আশায় ভাসানচরে যেতে আগ্রহী হয়েছে।
এর আগেও ৪ দফায় ১০ হাজার রোহিঙ্গা স্থানান্তর করা হয়েছে ভাসানচরে। সেখানে রোহিঙ্গাদের জীবন ধারণের জন্য বাংলাদেশ নৌবাহিনী সব রকমের ব্যবস্থা নিয়েছে। এ সময় রোহিঙ্গাদের বিদায় জানাতে এসে সে কথাই স্মরণ করিয়ে দিলেন চট্টগ্রাম নৌ-অঞ্চল কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল এম মোজাম্মেল হক।
উল্লেখ্য, আগামীকাল বৃহস্পতিবার আরও ২ হাজার রোহিঙ্গার ভাসানচরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

 

(ঊষার আলো-এম এইচ)