পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীর হাত-পা কুড়াল দিয়ে বিচ্ছিন্ন করে দিলেন স্বামী!

সর্বশেষ আপডেটঃ
A man holds an ax in his hands against on black background. Criminal

ঊষার আলো ডেস্ক : সন্দেহের ভিত্তিতে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে চাকরিজীবী স্ত্রীর হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে দিলেন স্বামী। চাকরি সূত্রে বাইরে থাকতেন স্ত্রী। কিন্তু স্বামী সন্দেহ করেছিলেন স্ত্রী পরকীয়া করছিলেন। ছুটিতে বাড়িতে ফেরার পরই এই কাণ্ড ঘটান স্বামী। এ ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (৯ মার্চ) রাতে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে।

দেশটির পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত প্রীতম সিংহ সিসৌদিয়া (৩২) একমাত্র সন্তানকে নিয়ে ভোপালের নিশাতপুর থানার হোসঙ্গাবাদের পারশ কলোনিতে বসবাস করতেন। তার স্ত্রী সঙ্গীতা কর্মসূত্রে থাকতেন ইনদোরে। তিনি এক কারখানার তত্ত্বাবধায়কের পদে কাজ করতেন, বাড়ি ফিরতেন সাপ্তাহিক ছুটিতে। মঙ্গলবারে তেমনই এক ছুটিতে বাড়ি এসেছিলেন সঙ্গীতা। পরে রাত সাড়ে ১১টার সময় নেশাগ্রস্ত অবস্থায় স্বামী তার হাত ও পা কেটে ফেলেন। সেই নারীর স্বামী প্রীতম সিংহ সিসৌদিয়াকে আটক করে পুলিশে খবর দেন প্রতিবেশীরা। পুলিশ এসে অভিযুক্ত প্রীতমকে গ্রেপ্তার করেছে। গুরুতর অবস্থায় ওই নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কিন্তু চিকিৎসকরা জানান, তার শারীরিক অবস্থা বেশ সঙ্কটাপন্ন। তার হাত ও পা জোড়া দেওয়া যাবে কিনা সেই ব্যাপারে চিকিৎসকরা নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি।

(ঊষার আলো-এসএফপি)