পাইকগাছার আলোচিত যমুনা ইটভাটা বন্ধ ও ৬টি কয়লা কারখানা ভেঙ্গে দিলো প্রশাসন

সর্বশেষ আপডেটঃ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : অবশেষে পাইকগাছার আলোচিত ইট ভাটা বন্ধ ও ৬টি কয়লা তৈরীর কারখানা ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশনায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেনের তত্বাবধায়নে বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নের মাহমুদকাটীস্থ যমুনা ব্রিকস এবং উপজেলার চাঁদখালীতে কয়লা তৈরীর কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহরিয়ার হক এর নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও আনসার সদস্যদের সহযোগিতায় লাইসেন্স সহ অনুমোদন না থাকায় আলোচিত যমুনা ব্রিকস এর সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।
অপরদিকে অবৈধভাবে কাঠ পুড়িয়ে পরিবেশ দূষণ করে কয়রা তৈরীর অভিযোগে চাঁদখালীর ৬টি কয়লা তৈরীর কারখানা ভেঙ্গে দেওয়া হয়। অবশেষে অনুমোদনবিহীন ইট ভাটার কার্যক্রম বন্ধ ও অবৈধ কয়লা তৈরীর কারখানা ভেঙ্গে দেওয়ায় জেলা ও উপজেলা প্রশাসনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসী। একই সাথে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত রাখার দাবি জানিয়েছেন সর্বস্তরের মানুষ।
পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এজাজ শফী বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, থানা পুলিশ অবৈধ ইটভাটা বন্ধে কাজ করেছে। জনস্বার্থে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।