পাইকগাছায় ইউপি নির্বাচন নিয়ে ভাঙচুর ও নির্যাতনের বিচার দাবি

সর্বশেষ আপডেটঃ
41
0
হামলা-ভাঙচুরের ফাইল ছবি - সংগৃহিত

ঊষার আলো প্রতিবেদক : পাইকগাছা উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম এনামুল হকের উপর অতর্কিত হামলা, হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ভাঙচুর ও তাদের নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। রবিবার (০৪ এপ্রিল) সাড়ে ১২টায় খুলনা প্রেসকাবে সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন স্থানীয় বাসিন্দা অমল কৃঞ্চ ঢালী।
লিখিত বক্তব্য তিনি বলেন, গত ২৭ মার্চ সকালে পাইকগাছার বেতবুনিয়া মাদ্রাসা রোডে ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হকের নির্বাচনী পোষ্টার লাগানোকে কেন্দ্র করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজী ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী অতর্কিত হামলা চালায়। ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হকসহ কয়েকজন গুরুত্বর জখম হন। এর জেরে ওই দিনই ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজী, তার ভাই কামরুল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম গাজীর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী অমল কৃঞ্চ ঢালীর বাড়ীতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে পারিবারিকভাবে নির্মিত ‘হরিচাঁদ ঠাকুর’র মন্দির ভেঙে গুড়িয়ে দেয়। বেধড়ক মারপিট করে অবুঝ শিশু, নারী ও সদ্য সিজারিয়ান প্রসূতিকেও। অথচ ঘটনার পরদিন হামলাকারীদের অন্যতম নেতৃত্বদানকারী রবিউল ইসলাম গাজী বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হকসহ নিরীহ অরাজনৈতিক হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে আসামী করে হয়রানিমুলক মামলা দায়ের করেছেন। পাশাপাশি কয়েকটি হিন্দু পরিবারকে ভারতে চলে যেতে হুমকি দেয়া হচ্ছে। তাদের জীবননাশের হুমকিতে লকডাউনের মধ্যে মহাসংকটে পড়েছেন কয়েকটি হিন্দু পরিবার। তারা নিরাপত্তার স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ