UsharAlo logo
সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাকিস্তান: আধা-সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে মামলা করবে ইমরানের দল

usharalodesk
মে ১৫, ২০২৩ ২:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঊষার আলো ডেস্ক :  ইমরান খানকে গ্রেপ্তারসহ রাজনৈতিক নানা ইস্যুতে পাকিস্তান এখন উত্তপ্ত। রাজনৈতিক পক্ষগুলো রাস্তার পাশাপাশি আদালতে একে অপরের বিরুদ্ধে কার্যত লড়াই করছে। আর এর মধ্যেই এবার পাকিস্তানের আধাসামরিক বাহিনী রেঞ্জার্সের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)।

একইসঙ্গে দেশটির দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরোর (এনএবি) বিরুদ্ধেও মামলা করবে দলটি। সোমবার (১৫ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

দুর্নীতির মামলায় গত সপ্তাহে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে ইমরান খানকে নাটকীয়ভাবে গ্রেপ্তার করে পাকিস্তানের আধাসামরিক বাহিনী রেঞ্জার্স। ইমরানের দল পিটিআই সেই ঘটনাকে ‘অপহরণ’ বলে আখ্যায়িত করেছিল। পরে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট ইমরানের গ্রেপ্তারকে অবৈধ এবং বেআইনি বলে রায় দেয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রাঙ্গণ থেকে দলীয় চেয়ারম্যান ইমরান খানকে ‘অপহরণের’ অভিযোগে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো (এনএবি) এবং রেঞ্জার্সের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিরোধী দল পিটিআই। একইসঙ্গে পাকিস্তানজুড়ে ‘শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে নিরস্ত্র নাগরিকদের হত্যার’ বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করবে ইমরানের দল।

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) বলছে, ‘কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশাপাশি পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখাওয়ার মুখ্যমন্ত্রী এবং পুলিশ প্রধানদের এই মামলাগুলোতে আসামি করা হবে।’

এছাড়া নিরস্ত্র নাগরিকদের হত্যার পাশাপাশি দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য বিক্ষোভকারীদের উসকানি দেওয়ার চেষ্টার তদন্তের জন্য সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের সমন্বয়ে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কমিশন গঠনের দাবিও জানিয়েছে ইমরান খানের দল।

রোববার পাঞ্জাবের রাজধানী লাহোরের জামান পার্কের বাসভবনে ইমরান খানের সভাপতিত্বে দলের নেতাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

পিটিআই সূত্র দাবি করেছে, পাকিস্তানজুড়ে পিটিআই সমর্থকদের ধারাবাহিক বিক্ষোভের সময় কমপক্ষে ২৪ জন নিহত এবং আরও প্রায় ৭০০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তারা আরও জানান, সাড়ে তিন হাজারের বেশি নেতা-কর্মীকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেছে।

এছাড়া গত ৯ মে সহিংস ঘটনার আলোকে দলের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন প্রচারণাকে প্রত্যাখ্যান করেছে পিটিআই। দলটি বলছে, ‘পিটিআই প্রধান ইমরান খান তার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার পরও আইন ও ন্যায়বিচারের পথ থেকে কখনও বিচ্যুত হননি।’

দলটি আরও বলেছে, গত বছরের ৩ নভেম্বর ইমরান খানকে হত্যার চেষ্টার পর দেশের হাজার হাজার জায়গায় বিক্ষোভ হয় এবং সেসময়ও একটি পাথরও ছুড়ে মারা হয়নি।

এদিকে পাকিস্তানে ক্ষমতাসীন জোটের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান সুপ্রিম কোর্টের সামনে সোমবার থেকে বিক্ষোভ দেখানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তবে জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলাম (জেইউআই-এফ) ও পিডিএম প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে ‘ছাত্রদের’ দিয়ে সুপ্রিম কোর্টে সম্ভাব্য ‘আক্রমণের’ তীব্র নিন্দা করেছে পিটিআই।

ইমরানের এই দলটির এক বিবৃতিতে রাজধানী ইসলামাবাদ এবং বিশেষ করে শহরের রেড জোনকে ক্ষমতাসীন জোটের একটি ব্যক্তিগত মিলিশিয়া বাহিনীর কাছে হস্তান্তরের নিন্দা জানিয়েছে পিটিআই।

একইসঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে পিটিআই জোর দিয়ে বলেছে, কেউ যদি সুপ্রিম কোর্টকে তার সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন থেকে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করে তবে তারা সম্পূর্ণ শক্তির প্রয়োগ করে প্রতিশোধ নেবে।

এছাড়া পাঞ্জাবে রোববার সুপ্রিম কোর্ট-ঘোষিত সাধারণ নির্বাচন আয়োজন না করার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তকে ‘সংবিধানের হত্যা’ বলেও অভিহিত করেছে পিটিআই।

দলটি বলেছে, নির্বাচন আয়োজন না করায় পাঞ্জাবের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পদে থাকার কোনও সাংবিধানিক বা আইনি অধিকার নেই। দলীয় বৈঠকে পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখাওয়াতে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ভবিষ্যৎ নিয়ে আইনি প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

ঊষার আলো-এস