প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণটিকা

সর্বশেষ আপডেটঃ

মোঃ আশিকুর রহমান : হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কোভিড-১৯ প্রতিরোধকল্পে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের পরিচালনায় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সহযোগীতায় নগরীর দৌলতপুর থানাধীন কেসিসি’র ১, ৩, ৪, ৫ ও ৬ ওয়ার্ডে সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

তবে বিগত দু’ দফায় জাতীয় পরিচয়পত্র জমাদানের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ সহজভাবে গণটিকা নিতে যে সাচ্ছন্দ বোধ করেছে, কিন্তু ৩য় দফায় নিবন্ধনের মাধ্যমে টিকাগ্রহনে অধিকাংশ দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভিন্ন এলাকা হতে টিকা নিতে আসা সাধারণ মানুষ। কারণ হিসাবে দেখা গেছে পূর্বে যাদের নিবন্ধন করা ছিল, যাদের ম্যাসেস আসে নাই কেবল সে সকল ব্যক্তি সহজেই টিকা নিতে পেরেছি। তবে নতুন করে নিবন্ধন করে টিকা নিতে পারেনি বহুসংখ্যক ভূক্তভোগী। ওয়েবসাইডের জটিলতার কারণে নতুন করে রেজিস্ট্রেশন করতে পারেনি অনেকেই।

সরেজমিনে, মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রতিটি ওয়ার্ডে লাইনে দাড়িয়ে সারিবদ্ধভাবে টিকা নিয়েছেন বিভিন্ন এলাকা হতে আসা সাধারণ মানুষ। সকাল ৯টা হতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত একটানা চলে তৃতীয় পর্যায়ের এই গণটিকা। ওয়ার্ড অফিস সূত্রে জানা যায়, প্রধান মন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিটি ওয়ার্ডের তিনটি কেন্দ্রে ৫শ’ জনকে টিকা প্রদান করা হবে। তবে প্রথম ও দ্বিতীয় দফায় গণটিকার নেয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দানের মাধ্যমে টিকার প্রথম ডোজ সম্পন্ন করলেও এবার টিকা নেয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই নিবন্ধন করা থাকতে হবে।

কেবলমাত্র টিকার নিবন্ধনকারী উল্লিখিত ওয়ার্ড সমূহের নির্ধারিত কেন্দ্র হতে কোভিড-১৯ এর টিকা গ্রহন করেছেন। তিনটি কেন্দ্রে কেসিসি’র ও আরবান স্বাস্থ্যকেন্দ্রের টিকাদানকারী কর্মীসহ সেচ্ছাসেবক কর্মী নিবিড় তত্ত্বাবধায়নে টিকা গ্রহনের কার্যক্রম চলে।

কাউন্সিলর কার্যালয়ের তথ্যেনুসারে, প্রতি ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর শুভজন্মদিন উপলক্ষে সর্বমোট ৫শ’ জন নিবন্ধনধারীকে কোভিড এর ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়। যার মধ্যে প্রতিটি কেন্দ্র প্রথম নিতে আসা টিকা গ্রহনকারীদের নিবন্ধন যাচাই-বাছাই পূর্বক টিকা প্রদান সম্পন্ন করা হয়েছে। ১নং ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে ৩নং ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে, ৪নং ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে, ৫নং ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে, ৬নং ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে টিকা গ্রহন করছে বিভিন্ন এলাকা হতে আগত টিকা নিতে আসা সাধারণ মানুষ।

দেয়ানা উত্তরপাড়া সরঃ প্রাঃ বিদ্যাঃ টিকা নিতে নাজমা খাতুন বলেন, শান্তিপূর্ন পরিবেশে টিকা নিয়েছে। তবে পুরুষ মহিলা একইস্থানে করাটা সঠিক হয়নি। পাশাপাশি নিবন্ধন না থাকার দরুন একেই টিকা নিতে পারেনি। শুনেছি আগে টিকা নিতে কোন নিবন্ধন লাগেনি, তবে এবার টিকা প্রদানের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক নিবন্ধন লেগেছে।

৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মাদ আলী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ৮০ লক্ষ গণটিকা প্রদান করা হয়েছে সাধারণ মানুষের জন্য। কিন্তু দুঃখের বিষয় এমন খুশির দিনে অনেকেই খুশি হতে পারিনি প্রক্রিয়া জটিলতার দরুন। কারণ বিগত দু’দফায় ওয়ার্ড পর্যায়ে বিনা নিবন্ধনে টিকা গ্রহন করার সিধান্ত থাকলেও এবার বিনা নিবন্ধনে টিকা গ্রহন করা সম্ভব হয়নি। কারণে সার্ভার বিজি থাকার দরুন নতুন করে কেউ নিবন্ধন করতে পারিনি। এ প্রক্রিয়া বেশ জটিলতার কারণে অসংখ্যক সাধারণ মানুষ টিকা নিতে পারেনি।

কেসিসি’র স্বাস্থ্যবিভাগের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ স্বপণ কুমার হালদারকে এ ব্যাপারে জানালে তিনি বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর হতে আমাদের যে নির্দেশনা দিয়েছে আমরাও ওয়ার্ড পর্যায়ে একই নির্দেশনা দিয়েছি। তবে নতুন নিবন্ধন ও সার্ভারের যে সমস্যা সৃষ্টি টিকা নিতে আসা টিকাগ্রহনকারীদের এ ব্যাপারে আমরা ইতিমধ্যে বিষয়টি সিভিল সার্জনকে অবিহিত করেছি।

(ঊষার আলো-এমএনএস)