বাগেরহাটের বই ব্যবসায়িদের প্রনোদনার দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

সর্বশেষ আপডেটঃ

বাগেরহাট প্রতিনিধি : করোনা মহামারির কারনে দুই বছর ধরে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পুস্তক ব্যবসায়িরা ব্যাপকভাবে আর্থিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। ঋনের কিস্তির চাপ, সংসারে চরম অভাব দেখা দেয়ায় উপায়ন্তর না পেয়ে বাগেরহাটের পুস্তক ব্যবসায়ি সমিতি কেন্দ্রিয় কমিটির নির্দেশনায় জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছে। সমিতির বাগেরহাট জেলা শাখার সভাপতি আবু জাফর মোল্লা বিপু ও সাধারন সম্পাদক ইমরুল কায়েস বুধবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্য্যলয়ে গিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ আজিজুর রহমানের হাতে স্মারকলিপিটি তুলে দেয়।

এ সময় পুস্তক বিক্রেতা শরীফ মাসুদুল করিম, পলাশ দাস, ফরহাদ হোসেন ও মাসুদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সাধারন সম্পাদক ইমরুল কায়েস বলেন, করোনার দুই বছর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, দফায় দফায় লকডাউনের কারনে বইয়ের দোকান বন্ধ রাখা হয়েছে। অথচ, বাগেরহাটের অধিকাংশ বই বিক্রেতারা এনজিও ঋনে আবদ্ধ। ঋনের চাপ, সংসারে অভাব থাকায় যথাযত চিকিৎসা না পেয়ে ইতোমধ্যে বই ব্যবসায়ি মোঃ মহিবুল্লাহ, মিজানুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম ও আঃ হাকিম মারা গেছেন। তাই আমরা উপায়ন্তর না পেয়ে সমিতির কেন্দ্রের নির্দেশনায় বুধবার দুপুরে সারাদেশের ন্যায় বাগেরহাটের বই বিক্রেতারা বিশেষ প্রনোদনা প্যাকেজ ঘোষনা ও আর্থিক অনুদানের দাবীতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করি।

(ঊষার আলো-এমএনএস)