বাগেরহাটে ভুমি অধিগ্রহন শাখায় আটক শরনখোলার দালালকে কারাদন্ড

সর্বশেষ আপডেটঃ

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাট জেলা কালেক্টরেটের জমি অধিগ্রহন শাখায় এসএ কেসের দালালি করতে এসে বাবুল হাওলাদার (৪৫) নামের এক দালাল আটক হয়েছে। তাকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১৫ দিনের কারাদন্ড দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। বাবুল হাওলাদার জেলার শরনখোলা উপজেলার সাউথখালি গ্রামের মোঃ আউব আলী হাওলাদারের ছেলে।

জেলা কালেক্টরেটের নেজারত ডেপুটি কালেক্টরেট(এনডিসি) মোঃ শাহাজান মঙ্গলবার বিকেলে জানান, বাবুল হাওলাদার কালেক্টরেটের জমি অধিগ্রহন শাখায় এলএ কেসের বিষয়ে খোঁজ নিতে আসে। তার কথা ও কাজে গড়মিল থাকায় এ বিষয়ে শরনখোলা উপজেলায় খোজ খবর নিলে সে এলএ শাখায় জমি অধিগ্রহনের দালালি করতে এসেছে বলে সত্যতা পাওয়া যায়। এক পর্যায়ে বিষয়টি জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আ.ন.ম ফয়জুল হক মহোদয়ের নজরে আসলে তিনি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশনা দেন। পরে কালেক্টরেটের নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট মমতাজ বেগম ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে দঃবিঃ ১৮৬০ এর ১৮৯ ধারা মোতাবেক বাবুল হাওলাদার কে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

উল্লেখ্য, বিগত সময়ে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প রামপাল, মোংলা ও ফকিরহাটে রেললাইন র্নিমানে জমি অধিগ্রহনের ক্ষতিপুরন প্রদানে প্রকাশ্য দালালিতে বাগেরহাট জেলা কালেক্টরেট বিতর্কিত হয়েছিল বলে প্রচার রয়েছে।

(ঊষার আলো-আরএম)