বাঙালি জাতির জীবনে শোকবাহ ও বেদনার দিন ১৫ আগস্ট : সালাম মূশের্দী এমপি

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : বাঙালি জাতির জীবনে ১৫ই আগস্ট একটি শোকবাহ ও বেদনার দিন। বঙ্গবন্ধু তার জীবন বিসর্জন দিয়ে বাঙালি জাতিকে স্বাধীন সার্বভৌম একটি রাষ্ট্র উপহার দিয়ে গেছেন। শোষিত নিপীড়িত পরাধীন এই জাতিকে স্বাধীন করার জন্য অসংখ্যবার কারাবরণ করেছেন তিনি।

১৫ আগস্ট রোববার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে খুলনা জেলার রূপসা, তেরখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বেলা ১১ টায় এক আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সদ্য স্বাধীন যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে যখন নেতৃত্ব দিয়ে স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ঠিক তখনই স্বাধীন বাংলাদেশের সূর্যকে অস্তমিত করার জন্য ৭১ এর পরাজিত শক্তি ও এদেশী ঘাতক দালালদের ষড়যন্ত্রে পৃথিবীর ইতিহাসে জঘন্যতম হত্যাকান্ডটি ঘটায়। সে হত্যাকান্ড থেকে প্রাণে বেঁচে যাওয়া বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা অনেক চড়াই উৎরাই মোকাবেলা করে বাংলাদেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ ও স্বয়ংসম্পূর্ন রাষ্ট্র হিসেবে পৃথিবীর বুকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

রূপসা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা রুবাইয়া তাছনিম এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা পরিষদ চেয়াারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা, সহকারী কমিশনার ভূমি খান মাসুম বিল্লাহ, থানার অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশাররফ হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ যোবায়ের, ফারহানা আফরোজ মনা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: ফরিদুজ্জামান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আইরিন পারভিন, প্রকৌশলী এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাহিরা খাতুন, সমাজ সেবা কর্মকর্তা জেসিয়া জামান, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা তারেক ইকবাল, বন কর্মকর্তা মো: মজিবুর রহমান, নির্বাচন কর্মকর্তা নাসির আহমেদ, বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ মিস্টার বাংলাদেশ আজাদ আবুল কালাম। উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আবু বকর মোল্লার সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন সমবায় কর্মকর্তা প্রশান্ত ব্যানার্জী, উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সদস্য আ: মজিদ ফকির, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ মোরশেদুল আলম বাবু, মুক্তিযোদ্ধা আ: মালেক, হরশিত বিশ্বাস, শিক্ষক রতন দেবনাথ, আওয়ামী লীগ নেতা স ম জাহাঙ্গির,আকতার ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম হাবিব, শারমিন সুলতানা রুনা, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আ: রাজ্জাক শেখ, কৃষ্ণ গোপাল সেন, ফ ম আইয়ুব আলী, মাধুরি রায়সহ বিভিন্ন শ্রেণীর কর্মকর্তা ও নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে যুব ঋণ বিতরণ, গাছের চারা ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এর পূর্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিত্বে মাল্যদান করা হয়।

দিঘলিয়া উপজেলার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ মারুফুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মোঃ আলিমুজ্জামান মিলন, দিঘলিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান উল্লহ চৌধুরী, ওসি তদন্ত রিপন কুমার সরকার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী রেজা বাচা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ শিরিন ময়না, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি হাবিবুর রহমান তারেক, উপজেলা মাধমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ মাহফুজুর রহমান, উপজেলা শিক্ষা অফিসার শাহনাজ বেগম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা বিপাশা তনু, জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা বিপ্রকাশ ঢালী, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান, মৎস কর্মকর্তা মুন্জুরুল আলম, পরিসংখ্যান অফিসার শাহরিয়ার রেজা, ইউ আরসি ইন্সটেক্টর গুলশান আরা বেগম, উপজেলা সহোকারী প্রোগ্রামার শমীর বিশ্বাস, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক ম্যানেজার জয়ন্ত কুমার,দারিদ্র্য বিমোচন অফিসার বিলকিস জোয়ার্দারসহ সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)