যুবলীগের স্মরণ সভায় অশ্রুসিক্ত রুনু ইকবাল

বিথারকে হত্যার মাধ্যমে খুলনাবাসীকে নেতৃত্বশূণ্য করা হয়েছে

সর্বশেষ আপডেটঃ
শহীদ ইকবাল বিথার - ফাইল ছবি

ঊষার আলো ডেস্ক : বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য, ২৪নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শহীদ ইকবাল বিথারের মৃত্যুবার্ষিকীতে খুলনা মহানগর যুবলীগের স্মরণ সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১২ জুলাই) সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত স্মরণ সভায় খুলনা মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজনের পরিচালনায় স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খুলনা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা। এ সময় তিনি বলেন, শহীদ ইকবাল বিথার বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি অবিচল ছিলেন। দল ও খুলনবাসির সেবায় তিনি আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। তার মৃত্যু আমাদের জন্য একটি অপূরনীয় ক্ষতি। আজকের এই দিনে আমরা তার আত্মার শান্তি কামনা করি। সেই সাথে এই হত্যা মামলা সহ সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের হত্যা মামলার সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান তিনি।
এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, শ্যামল সিংহ রায়, মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, ও শহীদ ইকবাল বিথারের স্ত্রী রুনু ইকবাল বিথার। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রুনু ইকবাল বিথার, দলের ও খুলনবাসির প্রতি শহীদ ইকবাল বিথারের যে টান ছিল সেটি তুলে ধরেন। এ সময় তিনি অশ্রুসিক্ত নয়নে বলেন, দীর্ঘদিন পরে হলেও দলীয় কার্যালয়ে শহীদ ইকবাল বিথারের স্মরণ সভার আয়োজন হয়েছে এটই প্রমান করে হত্যার মধ্যদিয়ে শহীদ ইকবাল বিথারকে শেষ করা যায়নি। তিনি বেচে থাকবেন আমাদের মাঝে আওয়ামী লীগের অগনিত কর্মীর হৃদয়ে। তিনি আরো বলেন, শহীদ ইকবাল বিথারের হত্যা শুধু আমাকে স্বামী হারা বা আমার সন্তানকে পিতৃহারা করেনি, খুলনাবাসিকেও যোগ্য নেতৃত্ব হারা করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিন্রা প্রতি আমার ও আমার পরিবারের দৃঢ় বিশ^াষ রয়েছে। আমরা বিশ^াস করি শহীদ ইকবাল বিথারের হত্যাকান্ডের বিচার হবে।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা আকীল উদ্দিন, কাউন্সিলর ইমাম হাসান চৌধুরী, নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, নগর যুবলীগ নেতা রোজী ইসলাম নদী, আব্দুল কাদের শেখ, আবুল হোসেন, সওকত হোসেন, অভিজিৎ চক্রবর্তী দেবু, কবির পাঠান, তাজুল ইসলাম, মহিদুল ইসলাম মিলন, মশিউর রহমান সুমন, কে এম শাহিন হাসান, সাবেক ছাত্রনেতা অভিজিৎ পাল, যুবলীগ নেতা ইলিয়াস হোসেন লাবু, রবিউল ইসলাম লিটন, হাসান শেখ, কাঞ্চন শিকদার, ইমরুল ইসলাম রিপন, জামাল শেখ, মাসুম উর রশিদ, মাসুম আহমেদ ডলার, হারুন উর রশিদ, আনিসুর রহমান, জামাল শেখ, লাবু আহমেদ, জিহাদুল ইসলাম জিহাদ, মহিদুল ইসলাম শান্ত, ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান বাবু, জব্বার আলী হিরা, জহির আব্বাস, সোহান হোসনে শাওন, মাহমুদুল হাসান রাজেস, হিরন হাওলাদার, নিশাত ফেরদৌস অনি প্রমূখ।
স্মরণ সভা শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মহানগর শ্রমিক লীগ নেতা হাফেজ মোঃ আব্দুর রহিম।