মোংলা গার্লস স্কুলের শিক্ষক করোনায় শনাক্ত, ঝুঁকিতে অন্যরা

সর্বশেষ আপডেটঃ

মোঃ এরশাদ হোসেন রনি, মোংলা : মোংলায় গার্লস স্কুলের এক শিক্ষককের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ওই শিক্ষক বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তার আগে করোনা পজেটিভ শনাক্ত হন ওই শিক্ষকের স্ত্রী। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবিকা সুচন্দা। বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বাকী শিক্ষক-শিক্ষাকাদের করোনা পরীক্ষা করোনার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকতা এস,এ আনোয়ারুল কুদ্দুস বুধবার রাতে জানান, পৌর শহরের শেহলাবুনিয়া-মোর্শেদ সড়কের মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের (গার্লস স্কুল) সহকারী শিক্ষক পুলিন কুমার মন্ডল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তার বাড়ীতেই কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) তিনি বিদ্যালয়ে এসে জ্বর অনুভব করেন এবং কাশি দিতে থাকেন। পরে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তার করোনা পরীক্ষা করোনার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। সেখানে পরীক্ষায় তার করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। এর আগে বিদ্যালয়ে থাকাকালীন সময়ে তিনি ফোনে জানতে পারেন তার স্ত্রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবিকা সুচন্দারও করোনা পজেটিভ হয়েছে। শিক্ষক পুলিন কুমার মন্ডল ইউপি নিবার্চনের দায়িত্বেও ছিলেন।

শিক্ষা কর্মকতা আনোয়ারুল কুদ্দুস আরো বলেন, এই মুহূর্তে স্কুল বন্ধ করে দেয়া হচ্ছেনা, বাকী শিক্ষকদের মধ্যে মধ্যে আরো কারো করোনা শনাক্ত হলেই স্কুল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নরেশ হালদার বলেন, শিক্ষক পুলিন ইউপি নির্বাচন চলাকালীন সুন্দরবন ইউনিয়নের কচুবুনিয়ায় দায়িত্ব পালন শেষে মঙ্গলবার স্কুলে এলে তার শরীরে নানা রকম করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। পরে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে তিনি ওই দিন ক্লাস নিতে পারেননি। এজন্য ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর কোন ভয় নেই। তবে অন্যান্য শিক্ষকদের মাঝে ছড়িয়েছে কিনা সেজন্য তাদের ১২জন শিক্ষককে বৃহস্পতিবার করোনার পরীক্ষা করানোর জন্য বলা হয়েছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)