জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে খুবি'র পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ

মৎস্যখাতের প্রবৃদ্ধি টেকসই করে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি সম্ভব : উপাচার্য

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০২১ উপলক্ষে ‘বেশি বেশি মাছ চাষ করি, বেকারত্ব দূর করি’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকাল ৯টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কটকা স্মৃতিস্তম্ভ সংলগ্ন পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়। পরে সেখানে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের মৎস্য সেক্টরে উৎপাদন বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রয়েছে। এই অগ্রযাত্রাকে টেকসই করতে হবে। মৎস্যখাতে এখনও বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এই খাত আরও অবদান রাখতে পারে। তিনি বলেন, দেশের মানুষের আমিষের যোগানের প্রধান উৎস মৎস্যখাত। এছাড়া মাছ রপ্তানি বৃদ্ধির মাধ্যমে আরও বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, মাছের মান নিয়ন্ত্রণ অর্থাৎ মানসম্মত মাছের উৎপাদনে নজর দিতে হবে। তাহলে বিদেশে চাহিদা বাড়বে। এক্ষেত্রে তিনি মাছের মানসম্মত খাদ্যের ওপর জোর দেন। মৎস্য খাতের উন্নয়নে তিনি বর্তমান সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের প্রশংসা করে বলেন, গবেষণার মাধ্যমে এ খাতের উন্নয়নে দিকনির্দেশনা দিতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নতুন নতুন গবেষণা প্রয়োজন। তিনি গবেষণার ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সম্ভব সহায়তার আশ্বাস দেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা বলেন, মাছে ভাতে বাঙালি, এই প্রবাদের ঐতিহ্য অক্ষুণ্ন আছে। মাছ উৎপাদন দিন দিন বাড়ছে, যা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্স টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুর রউফ। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম সরোয়ার, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়দেব পাল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী অধ্যাপক সুদীপ দেবনাথ।

এ সময় ডিসিপ্লিনের অন্যান্য শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং মৎস্য বিভাগের বিভিন্ন উপজেলার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)