UsharAlo logo
বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে ট্রেনের ধাক্কায় ট্রাক ছিটকে বস্তিতে

usharalodesk
এপ্রিল ৫, ২০২১ ১১:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঊষার আলো ডেস্ক : রাজশাহীতে ট্রেনের ধাক্কায় ট্রাক দুই টুকরো হয়ে রেললাইনের পাশে থাকা বস্তি ঘরের ওপর ছিটকে পড়েছে। রবিবার (৪ এপ্রিল) রাত সোয়া ১০টার দিকে রাজশাহী নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার রেলক্রসিংয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষ হয়।
এ ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর না পাওয়া গেলেও ট্রাকটি দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রেললাইনের পাশের বস্তির দুটি বাড়ি।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার (৪ এপ্রিল) রাত ১০টা ১১ মিনিটে রেলক্রসিংয়ে উঠার পর পাথরবোঝাই একটি বড় ট্রাক বিকল হয়ে যায়। ট্রাকচালক ইঞ্জিন স্টার্ট দেয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ট্রাকের ইঞ্জিন সচল হচ্ছিল না। পরে ট্রেনটি রেলক্রসিং অতিক্রম করে চলে গেলে এমন দুর্ঘটনা ঘটে। রেলক্রসিংয়ে থাকা গেটম্যান সামাউন ইসলাম তখন সিগন্যাল লাইট জ্বালিয়ে ট্রেনটিকে থামার সংকেত দিলেও ট্রেনটি থামেনি।
ট্রেন আসতে দেখে ট্রাক থেকে লাফ দিয়ে ট্রাকচালক নিরাপদ স্থানে যান। এরপরই ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের ধাক্কা লাগে। ট্রাকটি ঠেলে প্রায় ১৫০ মিটার সামনে নিয়ে যায় ট্রেনটি। ট্রেনের ধাক্কায় ট্রাকটির ইঞ্জিন ও বডি দুই টুকরো হয়ে যায়। ট্রাকের অংশ পাশের দুটি বাড়ির ওপরে গিয়ে পড়ে। আর ইঞ্জিনের অংশটুকু দুমড়েমুচড়ে রেললাইনের পাশে পড়ে থাকে। তবে ট্রেনের কোনো বগি লাইনচ্যুত হয়নি।
গেটম্যান সামাউন ইসলাম বলেন, ‘রেললাইনের ব্যারিকেড ফেলার সময় হওয়ার আগেই ট্রাকটি লাইনে উঠে বিকল হয়ে যায়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে আমি পশ্চিম দিকে দৌড় দেই। এ সময় সিগন্যাল লাইট দেখানোর পাশাপাশি চারটি রেলের ফক্স সিগন্যাল পটকাও ফোটাই। এলাকার তিনজন যুবক রেলক্রসিং থেকে পশ্চিম দিকে দৌঁড়ে গিয়ে লাল পতাকা দেখান।’
তিনি জানান, অন্ধকারে চালক যেন লাল পতাকা দেখতে পান সে জন্য পতাকার ওপর মোবাইলের টর্চলাইটের আলোও ফেলা হয়। কিন্তু এসবের কিছুই টের পাননি ট্রেনচালক। ফলে বনলতা ট্রেনটি গিয়ে ট্রাকটিকে ধাক্কা দিয়ে ঠেলে নিয়ে যায়। ট্রেন যখন ট্রাককে ঠেলে নিয়ে যায়, তখন ট্রাকের বডির অংশের আঘাতে আরেক গেটম্যান মো. টুকু ও ভ্যানচালক মো. মজনুর বাড়ির দুটি ঘর ভেঙে যায়। তবে ওই ঘরে কোনো মানুষ না থাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।
নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম মাসুদ পারভেজ বলেন, ‘দুর্ঘটনার পর কাশিয়াডাঙ্গা-আমচত্বর বাইপাস সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। রাত ৩টার দিকে ক্রেন দিয়ে ট্রাকের অংশ সরানো হয়। এরপর রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচল শুরু হয়।’

(ঊষার আলো-এমএনএস)