শামছুর রহমান মানি একজন দু:সময়ের রাজনৈতিক নেতা ছিলেন : সিটি মেয়র

সর্বশেষ আপডেটঃ

শামছুর রহমান মানির ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকীর আলোচনা সভা

ঊষার আলো ডেস্ক : খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, শামছুর রহমান মানি একজন দু:সময়ের রাজনৈতিক নেতা ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে খুলনায় এসে কয়েক জন নেতা একসাথে খুলনায় আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার রাজনীতি শুরু করেছিলেন। তাদের মধ্যে শামছুর রহমান মানি অন্যতম। তিনি খুলনায় আওয়ামী লীগকে প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে অনেক অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেছেন। তাদের ত্যাগের বিনিময়ে আওয়ামী লীগ হাটি হাটি পা পা করে আজকের অবস্থানে। তিনি আরও বলেন, তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে অন্তরদিয়ে ধারণ করেছিলেন বলেই দলকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিলেন। তাদের ত্যাগ, পরিশ্রমকে অনুসরণ করে দলকে শক্তিশালী করতে হবে। তাহলেই প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়ন হবে।
রোববার (১১ এপ্রিল) বাদ মাগরিব মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সাবেক সদস্য বঙ্গবন্ধুর আজীবন সহচর শামছুর রহমান মানির ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকীর আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময়ে বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা। স্মরণ সভা পরিচালনা করেন, মহানগর দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা শ্যামল সিংহ রায়, বীরমুক্তিযোদ্ধা নুর ইসলাম বন্দ, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যা. আলমগীর কবির, শেখ মো. আনোয়ার হোসেন, কাউন্সিলর শামছুজ্জামান মিয়া স্বপন, এ্যাড. অলোকা নন্দা দাস, কামরুল ইসলাম বাবলু, মো. মফিদুল ইসলাম টুটুল, মোজাম্মেল হক হাওলাদার, এ্যাড. সরদার আনিসুর রহমান পপলু, বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ মোশাররফ হোসেন, কাউন্সিলর শেখ হাফিজুর রহমান, এস এম আকিল উদ্দিন, এ্যাড. এ কে এম শাহজাহান কচি, রনজিত কুমার ঘোষ, মো. সফিকুর রহমান পলাশ, বীরমুক্তিযোদ্ধা মুন্সি আইয়ুব আলী, ফেরদৌস হোসেন লাবু, চ. ম মুজিবর রহমান, সরদার আব্দুল হালিম, এমরানুল হক বাবু, মো. শিহাব উদ্দিন, ওহিদুল ইসলাম পলাশ, সত্যপ্রিয় সোম বলাই, মো. শাহীন, অভিজিৎ চক্রবর্তী দেবু, ইলিয়াছ হোসেন লাবু, আশরাফ আলী হাওলাদার শিপন, ইলিয়াছ হোসেন সোহেল, জব্বার আলী হীরা, ঝলক বিশ্বাস, মাহমুদুর রহমান রাজেস, ওমর কামালসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।
স্মরণ সভা শেষে শামছুর রহমান মানি, ছাত্রলীগ নেতা আল আমিনের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং আওয়ামী লীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক এনাম, আওয়ামী লীগ নেতা নাজমুল আহমেদ স্বপন এবং যুবলীগ নেতা মো. শওকাত হোসেনসহ করোনায় আক্রান্ত এবং সকল অসুস্থ্য নেতাকর্মীদের সুস্থ্যতা কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

(ঊষার আলো-এমএনএস)