শাহজালাল বিমান বন্দরে করোনা ল্যাবের পরীক্ষামূলক কার্যক্রম শুরু

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : হয়রত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসা বিদেশগামীদের দ্রুততম সময়ে করোনা পরীক্ষার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ লক্ষে রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিমানবন্দরে স্থাপিত ছয় প্রতিষ্ঠানের আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে সকাল থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা যায়, প্রবাসীদের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার যাত্রা শুরুর ৬ ঘণ্টা আগে র‍্যাপিড পিসিআর টেস্ট করানোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। দীর্ঘদিন ধরে ঢাকার বিমানবন্দরে এই ব্যবস্থা না থাকায় আমিরাতে ফিরতে পারছিলেন না প্রবাসীরা। তবে কয়েকদফা পেছানোর পর অবশেষে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ হয়।

প্রাথমিক পর্যায়ে পরীক্ষামূলকভাবে একশ’ প্রবাসীকর্মীর নমুনা সংগ্রহ ও ল্যাবরেটরিতে স্থাপিত যন্ত্রপাতির মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট তৈরি হবে। ইতোমধ্যেই এ পরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর ভাইরোলজিস্টরা বিমানবন্দরে হাজির হয়েছেন।

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো, স্টেমজ হেলথকেয়ার (বিডি) লিমিটেড, সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার, এএমজেড হাসপাতাল লিমিটেড, আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, গুলশান ক্লিনিক লিমিটেড ও ডিএমএফআর মলিকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক।

উল্লেখ্য, করোনা মহামারির মধ্যে আমিরাত বাংলাদেশ থেকে বিমানযোগাযোগ শুরু করলেও এর জন্য শর্ত জুড়ে দেয়। আমিরাতের দেয়া শর্তের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশের বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইটের ৬ ঘণ্টার মধ্যে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট করে ফল নেগেটিভ আসতে হবে। এছাড়াও আমিরাতে প্রবেশ করার পর আবারও করোরা পরীক্ষা করা হবে।

আমিরাতের দেয়া ৬ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার শর্তের জন্য বাংলাদেশে আটকে যান প্রায় ৭ হাজার প্রবাসী। ল্যাব স্থাপনের ফলে তারা শিগগিরই দেশটিতে যেতে পারবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)