শিশু সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

সর্বশেষ আপডেটঃ

মোঃ সুজন বিশ্বাস, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় ৯ মাসের শিশু সন্তানকে হত্যার পর মা আকলিমা খাতুন আত্মহত্যা করেছেন অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) ভোরে শহরের থানাপাড়া বাঁধ এলাকায় আকলিমার বাবার বাড়ি থেকে মা ও তার শিশু পুত্রের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় মায়ের মরদেহ। আর তার পাশে বিছানায় পড়ে ছিল ৯ মাসের শিশু সন্তান জিমের মরদেহ।

নিহত আকলিমা খাতুন থানাপাড়া বাঁধ এলাকার অটোচালক রতনের স্ত্রী। স্থানীয়রা জানান, থানাপাড়ার পুরোনো বাঁধে স্বামী রতেনের সঙ্গে বসবাস করতেন আকলিমা খাতুন। স্বামীর বাড়ির পাশেই তার বাবা মাজেদের বাড়ি। স্বামীর বাড়িতে সংস্কার কাজ চলায় মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে বাবার বাড়িতে শিশু সন্তান জিমকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি। এসময় তার স্বামী নিজ বাড়িতেই ছিলেন। পরদিন বুধবার ভোরে পরিবারের সদস্যরা ঘরে ঢুকে দেখতে পান আকলিমার মরদেহ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলে রয়েছে। পাশেই বিছানায় শিশু জিমের নিথর দেহ পড়ে আছে। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মা ও সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, আকলিমা দীর্ঘদিন ধরে মানসিকভাবে অসুস্থ। তার চিকিৎসা চলছিল।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আকলিমা তার শিশু ছেলেকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর নিজেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানান তিনি।

(ঊষার আলো-এমএনএস)