শিয়ালীতে ভাংচুরের প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোটের মানববন্ধন

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : খুলনা জেলার রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের শিয়ালী গ্রামে ৭ আগস্ট সংঘটিত ধর্মাবলম্বীদের মন্দির-প্রতিমা-বাড়িঘর-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর-লুটপাটের প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোট, খুলনা’র উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টায় পিকচার প্যালেস মোড়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বাম গণতান্ত্রিক জোট খুলনা জেলা সমন্বয়ক মুনীর চৌধুরী সোহেলের সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশর কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) কেন্দ্রীয় সদস্য ও খুলনা জেলা সভাপতি ডাঃ মনোজ দাশ, কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, অরুণা চৌধুরী, জেলা সাধারণ সম্পাদক এড. এম এম রহুল আমিন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), খুলনা জেলা সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নাণ্টু, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সমরেশ রায়, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মোস্তফা খালিদ খসরু, সিপিবি খুলনা মহানগর সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম আনন্দ দাস, সিপিবি নেতা সুতপা বেদজ্ঞ, মিজানুর রহমান বাবু, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট, খুলনা জেলা সভাপতি আব্দুল করিম, টিইউসি নেতা রুস্তম আলী হাওলাদার, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম, খুলনা জেলা সভাপতি কোহিনুর আক্তার কণা, সাবেক ছাত্র ইউনিয়ন নেতা কে এম হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন খুলনা জেলা সভাপতি এড. নিত্যানন্দ ঢালী, মহানগর সভাপতি আফজাল হোসেন রাজু, সহ-সভাপতি শাহ ওয়াহিদুজ্জামান জাহাঙ্গীর, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রবিউল ইসলাম রবি, যুব নেতা হরষিত মণ্ডল, মানছুরা জুই, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নেতা অজয় মজুমদার, শেখ শহিদ, ইলিয়াস আকন, হারুনুর রশীদ, পাটকল আন্দোলন নেতা আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার, শামস শারফিন শ্যামন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন খুলনা মহানগর আহ্বায়ক আল আমিন শেখ প্রমুখ। বক্তারা বলেন, স্থানীয় ক্ষমতাসিনদের আশির্বাদপুষ্ট পার্শ্ববর্তী গ্রামের চিহ্নিত উগ্র একদল সন্ত্রাসী সশস্ত্র অবস্থায় সুপরিকল্পিতভাবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপর হামলা চালিয়ে যে ন্যক্করজনক ঘটনা ঘটিয়েছে তা অত্যন্ত ঘৃণার্হ ও নিন্দনীয়। বক্তারা ঐ সময় উপস্থিত প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তায় বিস্ময় প্রকাশ করেন। বর্তমানে উক্ত এলাকার সংখ্যালঘুরা মারাত্মক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। বক্তারা এহেন জঘণ্য ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অনতিবিলম্বে প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, দ্রুত মন্দিরগুলো পুনঃ সংস্কার, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও পরিবারগুলোর পুনর্বাসন এবং ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।

(ঊষার আলো-এমএনএস)