সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে জেলা জাপার নানা কর্মসূচি পালন

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো প্রতিবেদক : সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী বুধবার(১৪জুলাই) খুলনায় নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে পালিত হয়। তিনি ২০১৯ সালের এই দিনে ঢাকা সিএমএইচে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। কর্মসূচির মধ্যে ছিল ডাকবাংলাস্থ দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন, কোরআনখানি, ১২টায় দোয়া এবং দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ। এছাড়া জেলার ৯টি উপজেলা ও দু’টি পৌর সভায় মসজিদে মসজিদে এবং দলীয় কার্যালয়ে দোয়ার কর্মসূচী পালন করা হয়। জেলা জাপার উদ্যোগে বেলা ১২টায় আয়োজিত ডাকবাংলাস্থ দলীয় কার্যালয়ে স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন জাপার কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা জাপার সভাপতি শফিকুল ইসলাম মধু।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা জাপার সাঃ সম্পাদক এম হাদিউজ্জামান, কেন্দ্রীয় সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন, মোস্তফা শফিকুল ইসলাম ঢালী, এস এম এরশাদুজ্জামান ডলার, ওয়াদুদ মোড়ল, জেলা জাপার সহ-সভাপতি ফরহাদ হোসেন, জিএম বাবুল, সুলতান মাহমুদ, ফিরোজ মামুন, মাহাতাব চৌধুরি, আসাদুজ্জামান লিটু, শাহজান আলী সাজু, মফিজুর রহমান, গোলাম রসুল, অহিদুজ্জামান বাদল, মোবারক মৃধা, শফিকুল ইসলাম, সঞ্জয় গোলদার, জয়নাল, আঃ কুদ্দুস সরদার, ওমর ফারুখ, মিকাইল বিশ্বাস, খালিদসহ জেলা ও উপজেলার নেতৃবৃন্দ।

স্মরণ সভায় সভাপতি বলেন, নয় বছরে দেশ পরিচালনায় বাংলাদেশে যে উন্নয়ন হয়েছে, যা স্বাধীনতার পর কোন সরকার এত বেশী উন্নয়ন মূলক কাজ করতে পারেনি। যেমন রাস্তাঘাটসহ ৪৬৪টি উপজেলা পরিষদ গঠন করেছে। ১৯টি জেলা থেকে ৬৪টি জেলায় রুপান্তরিত করেছে। জেলা শহর থেকে উপজেলার যোগায়োগ ব্যবস্থার উন্নতি করেছেন। যার উন্নয়ন আমাদের খুলনায় দৃশ্যমান এবং রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম স্বীকৃতি ও শুক্রবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করেন। স্কুল ও মাদ্রাসার বিদ্যুৎ বিল মওকুফ করেন।

(ঊষার আলো-আরএম)