সুন্দরবন ধ্বংস হলে আগামী প্রজন্ম না খেয়ে মারা যাবে: খুলনা সিটি মেয়র খালেক

সর্বশেষ আপডেটঃ
মোংলায় খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক - ঊষার আলো
মোংলা প্রতিনিধি : সুন্দরবন ধ্বংস হলে আগামী প্রজন্ম না খেয়ে মারা যাবে। সুন্দরবনকে বাঁচান, নিজে বাঁচুন, আগামী প্রজন্মকে বাঁচান। পরিবেশকে সুরক্ষা করেই চলতে হবে। সুন্দরবন মায়ের মতো আগলে রাখে। সুন্দরবন থাকলে আপনি থাকবেন। বার বার বলেছি সুন্দরবনকে ধ্বংস করবেন না। বিষ দিয়ে যারা মাছ মারে তাদের মতো জঘন্য লোক আর নেই। ১ মার্চ সোমবার সকালে মোংলার বৈদ্যমারি বাজারে সুন্দরবন সংলগ্ন চিলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনা সিটি কপোর্রেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক একথা বলেন।
সোমবার সকাল ১১টায় কর্মী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চিলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মিহির কুমার ভান্ডারী। কর্মী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সাবেক রামপাল উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোল্লা আব্দুর রউফ, জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সহ-সভাপতি সাবেক মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ইদ্রিস আলী ইজারদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন। কর্মী সমাবেশে অন্যান্যদের বক্তব্য রাখেন চিলা ইউপি চেয়ারম্যান গাজী আকবর হোসেন, চাঁদপাই ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম, চিলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ নজরুল ইসলাম হাওলাদার, সরদার হুমায়ুন বাবর, মোঃ শফিকুল ইসলাম রাসেল, মাফতুম হাওলাদার, দিলিপ মন্ডল, আনোয়ারুল ইসলাম রিপন, যুবলীগ নেতা সামছুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা মোঃ মোছা ফকির প্রমূখ। কর্মী সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুজ্জামান জসিম, মিঠাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইস্রাফিল হোসেন হাওলাদার, আওয়ামীলীগ নেতা উৎপল মন্ডল, মাহমুদ হাসান ছোটমনি, তরফদার মোত্তালিব মুক্ত, পৌর কাউন্সিল এস এম কবির হোসেন, শরিফ হোসেন, মোঃ বাহাদুর মিয়া প্রমূখ। কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনা সিটি কপোর্রেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক আরো বলেন ইতিমধ্যে আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছি। ২০৪১ সালে উন্নত দেশ হবো। উন্নত দেশ হতে হলে সততার সাথে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিতে চাই। বাংলাদেশের সব জায়গায় উন্নয়ন হয়েছে। মোংলা-রামপালে ব্যতিক্রম উন্নয়ন হয়েছে। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত থাকবে। আসন্ন ইউপি নির্বাচন প্রসংগে কর্মী সমাবেশে সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন চেয়ারম্যান পদে তৃণমূলের কাছ থেকে মতামত নিয়ে ন্যুনতম তিন সদস্যের প্যানেল তৈরি করে কেন্দ্রের কাছে পাঠাতে হবে। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দিবেন তিনিই হবেন নৌকার প্রার্থী। তিনি আগামী ৭ মার্চের মধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের কাছে আগ্রহী চেয়ারম্যান-মেম্বর প্রার্থীদের আবেদন করার আহ্বান জানান