হ্যাটট্রিকের পরের ওভারেই ৬ ছক্কা খেলেন ধনাঞ্জয়া

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : ১ ম্যাচেই হ্যাটট্রিক আর ১ ওভারে ৬ ছক্কা হজমের অভিজ্ঞতা হয়েছে আকিলা ধনাঞ্জয়ার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-২০ ম্যাচে ১ ওভারের ব্যবধানে এমন অভিজ্ঞতা হয়েছে শ্রীলঙ্কান এই স্পিনারের।
মাত্রই আগের ওভারে পেলেন ক্যারিয়ারের প্রথম হ্যাটট্রিকের দেখা, এরপরের ওভারে কাইরন পোলার্ডের কাছে হজম করলেন ৬ ছক্কা। সেই ওভারেই খেলার ফলাফল নির্ধারিত হয়ে যায়। তাতে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিটা ৪ উইকেটে জিতে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় উইন্ডিজ।
সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে মাত্র ১৩২ রানের লক্ষ্য দেয়। প্রথম ৩ ওভারেই ২ ওপেনার লেন্ডল সিমন্স আর এভিন লুইসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৪৮ রান সংগ্রহ করে। পরের ওভারে এসেই ম্যাচ ঘুরিয়ে দেন ধনাঞ্জয়া। ওভারের দ্বিতীয় বলে তিনি ফেরান এভিন লুইসকে। পরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ক্রিস গেইল। হ্যাটট্রিক বলে ধনাঞ্জয়ার শিকার হন নিকোলাস পুরান।
এরপর পোলার্ড যখন উইকেটে আসেন, শ্রীলঙ্কা তখন রীতিমতো চালকের আসনে। ধনাঞ্জয়ার ক্যারিয়ারের প্রথম টি-টোয়েন্টি হ্যাটট্রিকটা তুলে নেওয়ার পরের ওভারে আরেক ওপেনার লেন্ডল সিমন্সকে ফেরান হাসরাঙ্গা ডি সিলভা। ১৩২ রান তাড়া করতে নেমে ৬২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসেছিল উইন্ডিজ। পরের ওভারে বোলিংয়ে আসা ধনাঞ্জয়ার ওপর চড়াও হন পোলার্ড। হার্শেল গিবস ও যুবরাজ সিংয়ের পর মাত্র ৩য় ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে টানা ৬ ছক্কার নজির গড়লেন পোলার্ড।
তবে এখানেই ধনাঞ্জয়ার যন্ত্রণা শেষ হয়নি। পরের ওভারের প্রথম বলেও হজম করে ছক্কা। ফলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো টানা ৭ ছক্কা হজমের ‘রেকর্ড’ও হয়ে যায় তার।
আগামী ৬ মার্চ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আবার মুখোমুখি হবে ২ দল।

 

 

(ঊষার আলো-এম.এইচ)