পাকিস্তানে পুলিশের সহায়তায় উগ্রপন্থীরা ভেঙে দিল মসজিদ

সর্বশেষ আপডেটঃ
16
0

ঊষার আলো ডেস্ক : পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের গুজরানওয়ালা জেলার গারমোলা ভিরকান গ্রামে আহমাদি মসজিদ ভেঙে ফেলার এক ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার (১৭ মার্চ) পুলিশের সহায়তায় মসজিদটি ভেঙে ফেলেন উগ্র মোল্লারা।

এক পাকিস্তানি সাংবাদিক বিলাল ফারুকি টুইটারে এ তথ্য জানিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন। মসজিদ ভেঙে ফেলার ছবিও দেন তিনি।

তিনি জানান, পুলিশের সহায়তায় মোল্লাদের একটি দল আহমাদি মসজিদটির গম্বুজ ও মিনার ভেঙে ফেলেছেন। মসজিদে কালিমা লেখা ছিল। মোল্লারা সেটারও অপমান করেন।

বিলাল ফারুকি সেই টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, পুলিশের সহায়তায় উগ্র মোল্লাদের একটি দল গুজরানওয়ালা জেলার গারমোলা ভিরকান গ্রামের আহমাদি মসজিদের গম্বুজ ও মিনার ভেঙে ফেলেছেন। মসজিদে লিখে রাখা কালেমারও তারা অপমান করেন। পাঞ্জাব সরকার কি এই গুন্ডাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেবে?

জানা যায়, পাকিস্তানে আহমাদি সম্প্রদায়ের প্রায় ৪০ লাখ মানুষ রয়েছে। কয়েক দশক ধরেই মৃত্যুর হুমকি, ভয় দেখানো ও ঘৃণ্য অভিযানের মুখোমুখি হয়ে আসছেন তারা।

মোনা ফারুক আহমাদ নামে একজন ব্যক্তি টুইট করেন, পাঞ্জাব প্রদেশের গুজরানওয়াল জেলার গারমোলা ভিরকান গ্রামে আহমাদি সম্প্রদায়ের একটি মসজিদের মিনার এবং গম্বুজ ভেঙে দিতে পুলিশ সহায়তা করেছে। রাজ্য যখন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ওপর অত্যাচার চালানোর সহযোগী, তখন কোনও প্রগতিশীল পাকিস্তানের আশা কি থাকে?

(ঊষার আলো-এফএসপি)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ