বেগমগঞ্জ উপজেলায় প্রেমের মীমাংসার বৈঠকে প্রেমিককে কুপিয়ে হত্যা

সর্বশেষ আপডেটঃ
45
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার আলাইয়াপুর ইউনিয়নে মো. পারভেজ হোসেন (২৪) নামের ১ যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৪ জন। ২৩ মার্চ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পাঁচবাড়িয়া গ্রামের এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত মো. পারভেজ হোসেন আলাইয়াপুর ইউনিয়নের আক্তাররামপুর গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে।
আহতরা হলেন-উপজেলার রুদ্রপুর গ্রামের নজির আহমদের ছেলে রিয়াদ হোসেন (২৭), মো. পারভেজ (২৫) ও হেঞ্জু মিয়ার ছেলে আজাদ হোসেনসহ (৩২) ৪ জন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বেগমগঞ্জের রুদ্রপুর গ্রামের নজির আহমদের ছেলে মো. সুজনের (১৮) সঙ্গে পাঁচবাড়িয়া গ্রামের শাহ আলমের মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্কের সূত্র ধরে সোমবার রাতে মোবাইল ফোনে সুজনকে বাড়িতে ডেকে নেয় শাহ আলমের মেয়ে। কল পেয়ে রাতে বাড়িতে এলে সুজনকে আটক করে শাহ আলম ও তার পরিবারের লোকজন। খবর পেয়ে রাতে সুজনের বড় ভাই রিয়াদ হোসেন ঘটনাস্থলে আসলে মেয়ের পরিবারের লোকজন তাদের কাছে টাকা দাবি করে অন্যথায় তাদের মেয়েকে বিয়ে করতে হবে বলে জানান।
সুজনের বড় ভাই রিয়াদ হোসেন অভিযোগ করে বলেছেন, রাতে তারা ওই বাড়িতে থেকে চলে আসলেও শাহ আলম তার লোকজন নিয়ে সুজনকে আটক করে রাখে। ২৩ মার্চ মঙ্গলবার সকালে তাদের পরিবার ও সুজনের বন্ধুরা মিলে ৮-৯ জন শাহ আলমদের বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি সমাধানে বসেন। এর কিছুক্ষণ পর শাহ আলম, তার ছেলে ও মেয়েরা অতর্কিতভাবে ধারালো দা ও বটি নিয়ে তাদের ওপর হামলা করে। এ সময় তারা রিয়াদ, পারভেজ হোসেন, আজাদ হোসেন ও পারভেজসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম করে।
আহতদের মধ্যে পারভেজ হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে দ্রুত নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। আহতদের হাসপাতালের ১নং ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান সিকদার বলেছেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(ঊষার আলো- এম.এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ