রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনের ঘটনায় ৮ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

সর্বশেষ আপডেটঃ
27
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। স্থানীয়দের দাবি, বাজার নিয়ন্ত্রণ, আধিপত্য বিস্তার ও ষড়যন্ত্র করে পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগিয়েছে রোহিঙ্গারা। তবে তদন্ত কমিটির মাধ্যমেই আগুনের প্রকৃত কারণ বেরিয়ে আসবে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব।
উখিয়ার বালুখালীতে আগুনে বিরাণভূমি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বড় একটি অংশ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। চারপাশে কেবলই আগুনে পোড়া ধ্বংসস্তূপ।
তবে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার কারণ নিয়ে প্রশ্ন সবার কাছে। স্থানীয়রা বলেছেন, ক্যাম্প ঘিরে রয়েছে বাজার নিয়ন্ত্রণ ও আধিপত্যের লড়াই। অগ্নিকাণ্ডে ঘরবাড়ি হারানোদের দাবি, এটি নিছক কোনো দুর্ঘটনা নয় একটি পরিকল্পিত একটি ঘটনা।
মঙ্গলবারই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. অনোয়ার হোসেন বলেছেন এটি নাশকতা কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
আর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন জানান, আগামী ৩ দিনের মধ্যে গঠিত তদন্ত কমিটি অগ্নিকাণ্ডের প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান করে বের করতে পারবে বলে তিনি মনে করছেন।
২৩ মার্চ মঙ্গলবার এক টুইটার বার্তায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনের ঘটনায় ৮ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
শাহরিয়ার আলম বলেন, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুর্ঘটনায় কমিটিকে আগামী ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
সোমবার বিকেল ৩টার দিকে, উখিয়ার বালুখালী ৮ নম্বর ক্যাম্পে হঠাৎ আগুন লাগে যায়। মুহূর্তেই তা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে নিহত হয়েছে ১১ জন। এ ঘটনার পর ৮ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে।

 

(ঊষার আলো-এম.এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ