নারায়ণগঞ্জে হরতাল সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

সর্বশেষ আপডেটঃ
33
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ডাকা সকল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে নারায়ণগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর, শিমরাইল ও সাইনবোর্ড এলাকায় সকাল থেকে মহাসড়ক অবরোধ করে হরতাল সমর্থনকারীরা। এ সময়ে হেফাজতে ইসলামীর কর্মীরা মহাসড়কে যানবাহন বন্ধ করে টায়ার জ্বালিয়ে, কাঠের গুড়ি জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন।
এদিকে সকাল থেকেই ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারিনি। মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে হেফাজত কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে যাচ্ছে।
আজ ভোর ৭টার পর হরতাল সমর্থনে হেফাজত ইসলামের কর্মীরা আশপাশ এলাকা থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মাদানী নগর, শিমরাইল মোড় এলাকায় জড়ো হতে থাকে। এ সময়ে হরতাল সমর্থনকারীরা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে বিক্ষোভকারীদের পুলিশ, র‌্যাব সদস্যরা ঘিরে রাখেন। মহাসড়কের সকল যানবাহন বন্ধ রয়েছে।
এদিকে, সকাল ১০টায় হরতাল চলাকালে সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকায় হেফাজতের নেতাকর্মীরা ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটছে। এ সময়ে পুলিশ পরিস্থিতি সামলাতে টিয়ার শেল ও শট গানের গুলি ছুঁড়েন।
প্রতক্ষ্যদর্শীরা বলেন, সকাল থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগর, মৌচাক এলাকায় হেফাজতের নেতাকর্মীরা লাঠিসোঠা নিয়ে জড়ো হতে থাকে। পুলিশের উপস্থিতিতে তারা শিমরাইল ইউটার্ন এলাকায় নিয়ে অবস্থান করেন। অবরোধকারীরা সড়কে টায়ার, বাঁশ, কাঠ, চৌকি, বেঞ্চসহ বিভিন্ন আসবাবপত্রে আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। তারা মহাসড়কের যানবাহন চলাচল বন্ধ করে রাখেন।
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হেফাজতের নেতাকর্মীরা সকাল থেকেই শিমড়াইল মোড়, মৌচাক ও সাইনেবোর্ড এলাকায় অবস্থান করেন। হরতালকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বিপুলসংখ্যক পুলিশ, বিজিবি ও র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। মহাসড়ক এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

(ঊষার আলো- এম.এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ