মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়া এলাকায় লাইটার ডুবিঃ নিখোঁজ তিনজনের সন্ধান মেলেনি 

সর্বশেষ আপডেটঃ
মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা : মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়া এলাকায় একটি বানিজ্যিক জাহাজের ধাক্কালেগে  এমবি  ফারদিন ১ নামক কয়লা বোঝাই একটি বাল্কহেড  ডুবেগেছে। নিখোজ লাইটারের তিন কর্মচারী। সোমবার(১৫ নভেম্বর)  রাত সাড়ে নয়টায় ওই বাল্কহেড ডুবির ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার পর্ন্তন্ত নিখোঁজ তিনজনের সন্ধান মেলেনি।
বন্দরের হারবাড়িয়া ৯ নাম্বারে অবস্থানরত বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ এমভি এলিনা বি  থেকে কয়লা বোঝাই করে ঢাকা মিরপুরের উদ্যোশে ছেড়ে যায় এমবি ফারদিন ১ বাল্কহেডটি। ওই সময় বিপরীত দিক থেকে বন্দর ত্যাগ করার সময় বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ  এমভি হ্যান্ডপার্ক নামক জাহাজের সাথে ধাক্কালাগে কয়লা বোঝাই বাল্কহেডটির। এর পর আস্তে আস্তে পানি ডুকে বাল্কহেডটির পিছনের অংশ ডুবেযায়। এসময় স্টিভিডরিং  কোম্পানী মেসার্স টি হক এর  লঞ্চ এসে লাইটারের দুই কর্মচারী ও এক আনসার( বোঝাইকৃত পন্য পাহারাদার) কে উদ্ধার করে। এখনো নিখোজ রয়েছে বাল্কহেডের তিন কর্মচারী। এমভি এলিনা বি নামক বিদেশী জাহাজের কয়লা খালাসকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স টি হক কোম্পানীর সুপার ভাইজর মোঃ লোকমান হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করেন। লোকমান হোসেন আরো জানান, দুর্ঘটনার পর তিনি বাংলাদেশ কোস্টগার্ড, নৌ বাহিনী ও বন্দরের সংশ্লিষ্ট শাখাকে জানিয়েছেন। তবে রাত  বারোটার মধ্যে কারো সহযোগীতা না পাওয়ায় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সুপারভাইজার লোকমান হোসেনের দাবী ডুবে যাওয়া বাল্কহেডটিতে ৫০০ থেকে ৬০০ মেট্রিকটন কয়লা থাকতে পারে।
বন্দরের হারবার বিভাগ জানায়, বাল্কহেডটি আংশিক ডুবেগেছে। এতে জাহাজ চলাচলের কোন প্রভাব পড়বে না। দ্রুত উদ্ধারে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানানো হয়।