ফরিদপুরে থানাসহ উপজেলা অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ: ৮৮ জনের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

সর্বশেষ আপডেটঃ
49
0

ঊষার আলো রিপোর্ট : ফরিদপুরের সালথা থানা ও উপজেলা পরিষদের সরকারি প্রায় সব অফিস ও বাসায় হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে এজাহারভুক্ত ৮৮ জনের নাম ও অজ্ঞাত ৪ হাজার জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
৬ এপ্রিল মঙ্গলবার সালথা থানায় মামলাটি করে পুলিশের উপপরিদর্শক মো. মিজান।
সালথায় লকডাউন চলাকালে ফুকরা বাজারে এসিল্যান্ডের এক সহকারীর লাঠিপেটাকে কেন্দ্র করে এ হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জামাল পাশা বলেন, পুলিশের পক্ষ থেকে এ মামলাটি করা হয়েছে। তিনি বলেছেন, এই ঘটনায় আরো মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল সোমবার রাতে লকডাউনের প্রথম দিনে সরকারি নির্দেশনা পালন করতে গিয়ে জনতার সঙ্গে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও তার সহকারিদের ভুল-বোঝাবুঝি হয়। তর্কে-বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন স্থানীয়রা। একপর্যায়ে গুজব রটিয়ে সন্ত্রাসীরা উপজেলা পরিষদ, থানা ও উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসভবনসহ বিভিন্ন অফিস ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। পরে রাষ্ট্রীয় সম্পদ রক্ষায় পুলিশ ৫৮৮ রাউন্ড শটগানের গুলি, ৩২ রাউন্ড গ্যাস গান, ২২টি সাউন্ড গ্রেনেড এবং ৭৫ রাউন্ড রাইফেলের গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

(ঊষার আলো- এম.এইচ)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ