ইরানি জাহাজে হামলা, সন্দেহ ইসরাইলকে

সর্বশেষ আপডেটঃ
9
0

ঊষার আলো ডেস্ক : লোহিত সাগরে ইয়েমেনের কাছা-কাছি ইরানি একটি জাহাজে হামলার ঘটনা ঘটেছে। জাহাজটি তেহরানের একটি আধাসামরিক বাহিনী ঘাঁটি হিসেবে কাজ করত। কয়েক বছর ধরেই জাহাজটি সেই এলাকায় অবস্থান করছিল।

গত মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ইরানি জাহাজ সাভিজে হামলার ঘটনাকে আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয় গণমাধ্যমে রহস্যজনক হিসেবে মন্তব্য করা হয়েছে। তবে এ হামলাটির জন্য ইসরাইলকে সন্দেহ করা হচ্ছে।

ইরানি জাহাজটি দীর্ঘ দিন ধরে সেই স্থানে অবস্থান করার জন্য সমালোচনা করেছিল সৌদি আরব। পশ্চিমা এবং জাতিসংঘ বিশ্লেষকরা বলছেন যে, ইরান সেই জাহাজটির মাধ্যমে ইয়েমেনের হুতিদের অস্ত্র এবং সমর্থন দিত। কিন্তু ইরান হুতিদের সাথে অস্ত্র যোগান দেওয়ার বিষয়টি একেবারে অস্বীকার করেছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খতিবজাদেহ বলেন, সাভিজ হলো একটি বেসামরিক জাহাজ। আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক সংস্থায় এটি আনুষ্ঠানিকভাবে নিবন্ধিত ছিল। জাহাজটি ইরানের ‘লজিস্টিক স্টেশন’ হিসেবে লোহিত সাগরে কাজ করে। আরও এটি অ্যান্টি-পাইরেটিং সেবাও দেয়। হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সাঈদ বলেন, ভাগ্যক্রমে এই ঘটনায় কোনও প্রকারের হতাহতের ঘটান ঘটেনি। তবে কিভাবে এই ঘটনা ঘটল ও এ ঘটনার উৎস খুঁজে বের করার কাজ চলছে।

(ঊষার আলো-এফএসপি)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ