ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছে ৬০ লাখেরও বেশি মানুষ

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : রুশ আগ্রাসনের পরই ইউক্রেন ছেড়ে ৬০ লাখের বেশি মানুষ পালিয়েছে। এক প্রতিবেদনে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা আল জাজিরা এই তথ্য জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) জাতিসংঘের প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ১১ মে পর্যন্ত ইউক্রেন থেকে পালিয়েছে অন্তত ৬০ লাখ ২৯ হাজার ৭০৫ জন।সংস্থাটি আরো জানিয়েছে, ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়ে জনসাধারণ সবচেয়ে বেশি আশ্রয় নিয়েছে প্রতিবেশী দেশ পোল্যান্ডে। তবে ১৮-৬০ বছর বয়সী ইউক্রেনীয় পুরুষরা তাদের সামরিক চাকরির জন্য দেশ ত্যাগ করতে পারেনি। যে কারণে শরণার্থীদের ৯০ শতাংশই নারী ও শিশু।

তবে যুদ্ধ শুরুর পর ইউক্রেনের সীমান্ত জুড়ে প্রতিদিন শরণার্থীদের দেশ ত্যাগের প্রবণতা কিছুটা কমেছে। গত মার্চ মাসে পালিয়েছিল ৩৪ লাখ ইউক্রেনীয় এবং এপ্রিলে ১৫ লাখ।

মে মাসের শুরু থেকেই প্রায় ৪ লাখ ৯৩ হাজার ইউক্রেনীয় ছেড়ে অন্য দেশে আশ্রয় চেয়েছে। জাতিসংঘের অনুমান অনুযায়ী, এই বছর ৮০ লাখের বেশি মানুষ ইউক্রেন থেকে পালিয়ে যেতে পারে। জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থার গবেষণা বলছে, দেশটিতে অভ্যন্তরীণভাবে স্থানান্তর ঘটেছে ৮০ লাখ।

ইউক্রেনের অর্থমন্ত্রী সের্হি মার্চেনকো বৃহস্পতিবার (১২ মে) রয়টার্সকে জানান, তাদের দেশ রাশিয়ার সাথে যুদ্ধে ৮৩০ কোটি ডলার ব্যয় করতে বাধ্য হয়েছে। অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত লোকদের জন্য অস্ত্র কেনা ও মেরামত থেকে শুরু করে জরুরি সহায়তার কাজে এই অর্থ ব্যয় হয়েছে। তিনি আরো জানান, ইউক্রেনের আরও জরুরি সাহায্য দরকার।

(ঊষার আলো-এসএইস)