বেনােপালে কাস্টমস সদস্যকে মারপিট

সর্বশেষ আপডেটঃ
25
0

যশোর প্রতিনিধি : বেনাপোলে চেকপোস্ট দিয়ে চোরাচালানে বাঁধা দেয়ায় মনির হোসেন নামে কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দার এক সদস্যকে মারপিটের ঘটনায় মামলা হয়েছে। এসময় জব্দকৃত মালামালও ছিনিয়ে নেয় চোরাচালানীরা। মারপিটের ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
গত ১৩ এপ্রিল সন্ধ্যায় দুই চোরাচালানীকে আসামি করে বেনাপোল পোর্টথানায় এ মামলা করেন শুল্ক গোয়েন্দা সদস্য মনির হোসেন। এর আগে ১২ এপ্রিল বিকেলে বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস হাউজের সামনে মহাসড়কের উপর এ হামলার ঘটনা ঘটে।
হামলাকারী আসামি হলেন, বেনাপোল পৌরসভার বড়আঁচড়া গ্রামের জোহার ছেলে ইউছুপ ও দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে আজিজ।
আহত শুল্ক গোয়েন্দা সদস্য মনির হোসেন জানান, গত ১২ এপ্রিল তিনি বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস ভবনের দ্বিতীয় তলায় কর্মরত ছিলেন। বিকাল ৪টা ২৫ মিনিটে সিসি ক্যামেরায় দেখতে পান সোর্স হিসেবে পরিচিত কয়েকজন চোরাচালানী নিরাপত্তাকর্মীদের যোগসাজসে ভারত থেকে চোরাচালান পণ্য নিয়ে কোনও বাঁধা ছাড়ায় দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করছে। এসময় তিনি অফিস থেকে বের হয়ে চোরাচালানিদের গতিরোধ করলে আজিজ ও ইউছুফ নামে চিহ্নিত দুই চোরাচালানী তাকে মারধর করে মালামাল নিয়ে যায়। বিষয়টি তিনি কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে সাথেই অবহিত করেন।
বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দার সহকারী পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান জানান, চোরাচালানে বাঁধা দেয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। সিসি ক্যামেরা দেখে অপরাধী সনাক্ত করে মামলা করা হয়েছে।
বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আতিয়ার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কাস্টমস সদস্য মনির হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেছেন। অপরাধীদের আটকে অভিযান চালানো হচ্ছে।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ