কুষ্টিয়ায় দরিদ্রদের জন্যে সড়কে ইফতার

সর্বশেষ আপডেটঃ
19
0

ঊষার আলো ডেস্ক : কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন সড়কের ফুটপাতে গত কয়েক দিন ধরে ইফতারের প্যাকেট ও পানি সাজিয়ে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে ইফতারের প্যাকেট তুলে নিচ্ছেন নিম্নআয়ের মানুষ। কেউ আবার পাশেই বসে খাচ্ছেন।
কুষ্টিয়ার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘নারী বাতায়ন’ এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে। এ বছর রোজার শুরু থেকে প্রতিদিনই এভাবে নিম্নআয়ের ও অসহায় মানুষের জন্য ইফতারের আয়োজন করছে সংগঠনটি।
কুষ্টিয়ার খাদ্য ও মিষ্টান্ন উৎপাদন প্রতিষ্ঠান মৌবনের উদ্যোগে এই সংগঠনটি পরিচালিত হয়ে আসছে। সংগঠনটি মূলত নারীদের উন্নয়ন ও কল্যাণের পাশাপাশি সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কল্যাণে কাজ করে। এটি মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর অনুমোদিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।
নারী বাতায়ন সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন বিকেল ৫টার দিকে ইফতারের জন্য তৈরি করা প্যাকেট বিভিন্ন দিন শহরের বিভিন্ন সড়কে রাখা হয়।
নারী বাতায়নের সভাপতি ও মৌবনের নিবার্হী পরিচালক সাফিনা আনজুম জনী জানান, তারা এ ধরণের কাজ সবসময়ই করে থাকেন। ২০০১ সাল থেকেই এ ধরণের কাজ করছেন তারা। গত বছর করোনা মহামারির শুরু থেকে এই কাজটি একটু বড়সড় পরিসরে শুরু করেছেন।
তিনি বলেন, ‘আপাতত প্রতিদিন ১৫০ প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। আমার শুভাকাঙ্খী, বন্ধু-বান্ধবরা এ কাজে সহায়তা করছেন। পুরো রোজার মাস এই কার্যক্রম চলবে। সামনে এটা আরও বড় পরিসরে করার ইচ্ছে আছে।’
সংগঠনের সদস্য রুবিনা খাতুন বলেন, ‘রমজানে এমনিতেই মানুষের নানা সমস্যা থাকে। এবার লকডাউনের কারণে এসব সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দুর্ভোগ আরও বেড়েছে। পুরো রমজান জুড়েই এভাবে অসহায় মানুষের মুখে ইফতার তুলে দেয়ার পরিকল্পনা করেছি আমরা।’
শহরের নারিকেলতলা এলাকার রিকশাচালক কুদ্দুস খান বলেন, ‘লকডাউনে যাত্রী নাই। কিন্তু সংসার তো আছে। চার জন খানেওয়ালা। যা আয় হয় ঠিক মতো খাইতেই কষ্ট হয়। বাড়তি খরচ তো অসম্ভব।’
তিনি জানান, দু’দিন তিনি ওই ইফতারের প্যাকেট সংগ্রহ করেছেন। বাসায় নিয়ে বৃদ্ধা মা ও পরিবারের সঙ্গে খেয়েছেন।

(ঊষার আলো-এমএনএস)

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ