বাগেরহাটের ডাকাতি ও গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ১

সর্বশেষ আপডেটঃ

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে বসতবাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ও জোরপূর্বক গৃহবধুকে ধর্ষন মামলার অন্যতম পলাতক আসামী কামরুল ইসলাম, তালুকদার (৩২) কে খুলনা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব সদস্যরা।

গোপন খবরের ভিত্তিতে বুধবার রাতে খুলনা লবনচরা থানার রুপা পেট্রোল পাম্প এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে মোড়েলগঞ্জ থানার বাসিন্দা।

খুলনা র‌্যাব-৬ এর মিডিয়া সেল থেকে এক মেইল বার্তায় সংক্ষিপ্ত বর্ননায় জানানো হয়, ২০২১ এর ২৬ ডিসেম্বর রাতে বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের পৃর্ব-চিপা বারুইখালী একটি বসতবাড়ির গ্রীল খুলে ডাকাতি ও বাড়ীর গৃহবধূকে বেঁধে ধর্ষণ করা হয়।

ক্ষতিগ্রস্থ গৃহকর্তা এ বিষয়ে বলেন, রাত ২টার পরে জানালার গ্রীল ভেঙ্গে ৬/৭ জন লোক ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্রের মুখে সকলকে জিম্মি করে এবং তার স্ত্রীকে (৩৬) মারপিট করে আলাদা কক্ষে বেঁধে রাখে। পরে কয়েকজনে মিলে তার স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে এবং ঘরে থাকা নগদ ১ লাখ ৯৬ হাজার টাকা ও ৯ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নিয়ে চলে যায়।

এ ঘটনায় মোড়েলগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের হয়। ঘটনাটি র‌্যাব-৬ কে অবহিত করা হয়। ঘটনার পর থেকে আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর একটি আভিযানিক দল ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর একটি চৌকস আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে যে, উক্ত ধর্ষণসহ ডাকাতি মামলার অন্যতম পলাতক আসামী কেএমপি খুলনা লবণচরা থানা এলাকায় অবস্থান করছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে খুলনার লবণচরা থানাধীন রুপা পেট্রোল পাম্প এলাকায় অভিযান করে মামলার আসামী মোঃ কামরুল তালুকদার কে গ্রেফতার করা হয়।

(ঊষার আলো-এফএসপি)