নগর নেতৃত্বে পলাশ-সুজন ও জেলায় ফরিদ-সোহাগ

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো রিপোর্ট : খুলনা মহানগর ও জেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে সফিকুর রহমান পলাশ সভাপতি ও শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন সাধারণ সম্পাদক এবং জেলায় চৌধুরী রায়হান ফরিদ সভাপতি ও ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুর রহমান সোহাগ নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাতটায় নগরীর ইউনাইটেড ক্লাবে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ।

সঞ্চালনা করেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খান নিখিল।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সোহেল, মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন এমপি, রফিকুল ইসলাম রফিক, মৃণাল কান্তি জোয়ার্দার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ ড. শামীম আল আহসান সোহাগ, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, উপ দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার শাহজাদা, উপ গ্রন্থনা ও প্রকাশনা নবীরুজ্জামান বাবুসহ কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতৃবৃন্দসহ খুলনা মহানগর যুবলীগের ৫০৯ জন কাউন্সিলর।

সভার সভাপতি তার বক্তব্যের শুরুতে খুলনা মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কমিটি বিলুপ্ত করেন। তারপর তিনি নগর যুবলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। এ কারনে সংগঠনকে গতিশীল করতে হবে।

সভায় সভাপতি পদে সফিকুর রহমান পলাশের নাম প্রস্তাব করেন মহানগর যুবলীগের কাউন্সিলর এ্যাডঃ আল আমীন উকিল, সমর্থন দেন শেখ মোহাম্মদ আলী।

সাধারণ সম্পাদক পদে শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজনের নাম প্রস্তাব করেন খুলনা মহানগর যুবলীগের কাউন্সিলর কাজী কামাল হোসেন সমর্থন করেন রোজী ইসলাম নদী।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে অন্যকোন নাম প্রস্তাব না হওয়ায় সভাপতি পদে সফিকুর রহমান পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক পদে শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন নির্বাচিত হন।

অপরদিকে রাত সোয়া ১২টার দিকে জেলা যুবলীগের সভাপতি পদে চৌধুরী রায়হান ফরিদ ও সাধারণ সম্পাদক পদে ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুর রহমান সোহাগের নাম ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় নের্তৃবৃন্দ।