খুলনার কর্মরত সাংবাদিকদের বিবৃতি

আইসিটি অ্যাক্টে মামলা ও তথ্য না দেয়ার নোটিশ জারির নিন্দা

সর্বশেষ আপডেটঃ

ঊষার আলো ডেস্ক : সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ঠাকুরগাঁয়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন (আইসিটি অ্যাক্টে) মামলা, সাংবাদিকদের তথ্য না দিতে ঢাকা সিভিল সার্জনের নোটিশ জারি নিন্দা জানিয়েছে খুলনার কর্মরত পেশাজীবী সাংবাদিকবৃন্দ।
তাঁরা বলেছেন, এসব ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী ও তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর পুরোপুরি লংঘন। এতে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।
রবিবার (১১ জুলাই) এক যৌথ বিবৃতিতে সাংবাদিকরা এসব কথা বলেন।
সাংবাদিকবৃন্দ বলেন, ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে বরাদ্দের বিপরীতে রোগীর খাবার পরিবেশনে অনিয়ম নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়। এ ঘটনার জের ধরে জাগোনিউজ২৪.কমের জেলা প্রতিনিধি তানভীর হাসান তানু, বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি আব্দুল লতিফ লিটু ও নিউজবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকমের জেলা প্রতিনিধি রহিম শুভকে আসামী করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. নাদিরুল আজিজ বাদী হয়ে মামলা করেন। পুলিশ শনিবার (১০ জুলাই) তানুকে গ্রেপ্তার করে। রবিবার তিনি জামিন পান। এর আগে গত ৮ জুলাই ২০২১ ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসানের সই করা নির্দেশনায় সরকারি হাসপাতালে রোগীর সেবা সম্পর্কিত ও স্বাস্থ্যবিষয়ক কর্মকা-ের বিষয়ে গণমাধ্যমে কোনও প্রকার তথ্য প্রদান ও মন্তব্য না দিতে নোটিশ জারি করেনস্বাধীন ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা না থাকলে দুর্নীতিবাজরা দেশের সকল উন্নয়ন ও অর্জন ধ্বংস করে দেবে। একটি সত্য সংবাদ করার পর এভাবে মামলা দিয়ে সাংবাদিককে হয়রানি করার মানে গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করার চেষ্টা।
কর্মরত সাংবাদিকরা, অবাধ তথ্য প্রবাহ, কর্মক্ষেত্রে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, সাংবাদিক হয়রানি বন্ধের দাবি জানান। একই সাথে সাংবাদিকদের নামে দায়ের করা ডিজিটাল মামলা প্রত্যাহার ও এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান।
বিবৃতিদাতারা হলেন এটিএন বাংলার খুলনা বিভাগীয় প্রধান এস এম হাবিব, কালের কণ্ঠের ব্যুরো প্রধান ও সিনিয়র রিপোর্টার গৌরাঙ্গ নন্দী, ইউএনবির খুলনা ব্যুরো প্রধান দিদারুল আলম, এনটিভির খুলনা ব্যুরো প্রধান আবু তৈয়ব, ইত্তেফাকের স্টাফ রিপোর্টার এনামুল হক, যমুনা টেভিশনের ব্যুরো প্রধান কনক রহমান, বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টুয়েন্টিফোরের ব্যুরো প্রধান সামছুজ্জামান শাহিন, মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিনিধি আবু হেনা মোস্তফা জামাল, জাগো নিউজের নিজস্ব প্রতিবেদক আলমগীর হান্নান, বাংলা ট্রিবিউনের হেদায়েৎ হোসেন মোল্লা, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার এইচ এম শামিমুজ্জামান, কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক কৌশিক দে, দৈনিক জন্মভূমির স্টাফ রিপোর্টার মো. আনিস উদ্দিন, একুশে টেভিশনের ব্যুরো প্রধান মহেন্দ্র নাথ সেন, রাইজিংবিডির মুহাম্মদ নুরুজ্জামান, বাংলা নিউজ টুয়েন্টিফোরের ব্যুরো এডিটর মাহবুবুর রহমান মুন্না, দেশ টেলিভিশনের খুলনা বিভাগীয় প্রতিনিধি এমডি অসীম, বাংলাদেশ টাইমসের খুলনা ব্যুরো প্রধান সাঈয়েদুজ্জামান স¤্রাট, দৈনিক প্রবাহের স্টাফরিপোর্টার বিমল সাহা, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের অভিজিৎ পাল, এসএ টেলিভিশনের খুলনা প্রতিনিধি রকিবুল ইসলাম মতি, দীপ্ত টেলিভিশনের খুলনা প্রতিনিধি ইয়াসিন আরাফাত রুমি, প্রথম আলোর খুলনা প্রতিনিধি উত্তম মন্ডল, চিত্র সাংবাদিক মো. সাদ্দাম হোসেন, ডেইলী স্টারের খুলনা প্রতিনিধি দীপংকর রায়, সময়ের খবরের স্টাফ রিপোর্টার আশরাফুল ইসলাম নূর, আমিনুল ইসলাম, ঢাকা পোস্টের নিজস্ব প্রতিবেদক মোহম্মদ মিলন,বার্তা২৪. কমের মানজারুল ইসলাম, দৈনিক প্রবর্তনের শেখ আউয়াল, দৈনিক কালান্তরের মো. বেল্লাল হোসেন সজল প্রমুখ।